kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩০ জুলাই ২০২১। ১৯ জিলহজ ১৪৪২

সু চির বিচার শুরু

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মিয়ানমারের সামরিক অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সু চির বিচার শুরু হয়েছে গতকাল সোমবার। তাঁর বিরুদ্ধে গত নভেম্বরে জাতীয় নির্বাচনের প্রচার চালানোর সময় করোনাভাইরাস বিধি-নিষেধ ভাঙা ও লাইসেন্সবিহীন ওয়াকিটকি রাখার মামলায় এদিন সাক্ষ্য নেওয়া হয়।

রাজধানী নেপিডোর বিশেষ আদালতে এই বিচারকাজ শুরু হয়। বার্তা সংস্থা এএফপির সাংবাদিক জানিয়েছেন, এ কারণে সেখানে বিপুলসংখ্যাক নিরাপত্তা সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। সু চির আইনজীবী খিন মাং জাও শুনানির আগে জানিয়েছেন, এই মামলার বিচার জুলাইয়ের শেষ পর্যন্ত চলতে পারে। তিনি বলেন ‘ভালো কিছুর প্রত্যাশায় আছি, তবে সবচেয়ে খারাপ কিছু শোনার জন্যও প্রস্তুত।’

৭৫ বছর বয়সী সু চির বিরুদ্ধে আরো কিছু গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছে। এগুলোর মধ্যে উসকানি দেওয়ার অভিযোগ, সরকারি গোপনীয়তা আইন ভঙ্গ এবং ইয়াঙ্গুনের সাবেক মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে ছয় লাখ ডলার ও ১১.৪ কেজি সোনা ঘুষ গ্রহণের অভিযোগও আছে। সব অভিযোগ প্রমাণিত হলে সু চিকে এক দশকের বেশি সময় কারাগারে থাকতে হতে পারে। খিন মাং জাও এসব অভিযোগকে ‘হাস্যকর’ বলে অভিহিত করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন পোস্ট থেকে জানা গেছে, গতকাল গণতন্ত্রপন্থী প্রতিবাদকারীরা দেশটির প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনের রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ মিছিল করেছে, তাদের অনেকে ‘বিপ্লবী যুদ্ধ, আমরা অংশ নিচ্ছি’ বলে স্লোগান দেয়।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত হন গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী সু চি। এর পর থেকেই আটক আছেন তিনি। অভ্যুত্থানের পর থেকে মিয়ানমারে নাগরিক অসহযোগ আন্দোলন ও বিক্ষোভ চলছে। আন্দোলন দমন করতে গিয়ে আট শতাধিক মানুষকে হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। ২০২০ সালের নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ এনে সু চির দল বিলুপ্ত করার হুমকিও দিয়েছে জান্তা সরকার। সূত্র : এএফপি।