kalerkantho

রবিবার । ৬ আষাঢ় ১৪২৮। ২০ জুন ২০২১। ৮ জিলকদ ১৪৪২

ইসরায়েলের হামলায় ২৫ ফিলিস্তিনি নিহত

যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধিতায় বিবৃতি দেয়নি নিরাপত্তা পরিষদ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১২ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ইসরায়েলের হামলায় ২৫ ফিলিস্তিনি নিহত

ফিলিস্তিনের গাজায় গতকাল ইসরায়েল বিমান হামলা করলে প্রাণভয়ে পালাতে থাকে স্থানীয়রা। ছবি : এএফপি

ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে কয়েক দিন ধরে যে উত্তেজনা চলছিল, তা হঠাৎ করেই ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে ইসরায়েলের বিমান হামলায় অন্তত ২৫ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। গাজা উপত্যকা থেকে হামাসের চালানো রকেট হামলার জবাবে এই বিমান হামলা চালানোর কথা জানিয়েছে ইসরায়েল। অন্যদিকে এই হতাহতের তীব্র নিন্দা জানানোর পাশাপাশি উভয় পক্ষকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছে বিশ্বসম্প্রদায়।

গাজার স্বাস্থ্যকর্মীরা জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে ৯ শিশুও রয়েছে। আহতের সংখ্যা শতাধিক। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ২০১৭ সালের পর উভয় পক্ষের সংঘর্ষে এটি ছিল প্রাণহানির সবচেয়ে বড় ঘটনা।

ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র জনাথন কনরিকাস দাবি করেছেন, গত সোমবার থেকে ফিলিস্তিনি বিচ্ছিন্নতাবাদীরা ইসরায়েলের ভূখণ্ড লক্ষ্য করে দুই শতাধিক রকেট হামলা চালিয়েছে। এর মধ্যে ৯০ শতাংশ রকেট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার আগেই ‘আয়রন ডোম’  ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে ধ্বংস করা হয়েছে। রকেট হামলায় ছয় ফিলিস্তিনি আহত এবং বেশ কিছু স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। ওই মুখপাত্রের ভাষ্য অনুযায়ী, ফিলিস্তিনি সশস্ত্র সংগঠন হামাসের বেশ কয়েকটি অবস্থান লক্ষ্য করে যুদ্ধবিমান ও হেলিকপ্টার থেকে বোমা হামলা চালানো হয়। তাতে নিহত হন হামাসের ১৫ কমান্ডার। বেসামরিক ব্যক্তি হতাহতের বিষয়ে ইসরায়েল নিশ্চিত নয় বলেও জানান কনরিকাস।

ইসরায়েলের বিমান হামলার পর গতকালও কয়েক দফা রকেট হামলা চালায় হামাস। সংগঠনটির ‘কাসেম ব্রিগেডস’ হুঁশিয়ারি দিয়েছে যে তারা ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলকে ‘নরক বানিয়ে ছাড়বে’।

ইসরায়েল-ফিলিস্তিনের চলমান এই অস্থিরতার সূত্রপাত ঘটে মূলত চলতি মাসের শুরুর দিকে; জেরুজালেমের শেখ জারাহ এলাকার একখণ্ড জমি নিয়ে। গত সোমবার হামাসের পক্ষ থেকে বলা হয়, জেরুজালেমের আল আকসা মসজিদ কম্পাউন্ড থেকে সব ইসরায়েলি সেনা প্রত্যাহার করে নিতে হবে।

একাধিক কূটনীতিক বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন যে মিসর ও কাতার পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে উভয় পক্ষের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছে। তবে ইসরায়েলের পক্ষ নিয়ে হামাসের রকেট হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। তিনি বলেছেন, ‘হামাসকে অবিলম্বে থামতে হবে।’

এদিকে ইসরায়েল-ফিলিস্তিন ইস্যুতে সোমবার রাতে জরুরি বৈঠকে বসে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। কিন্তু পরিষদের পক্ষ থেকে কোনো বিবৃতি দেওয়া হয়নি। একাধিক কূটনীতিক জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধিতার কারণে বিবৃতি দেওয়া হয়নি। তারা মনে করে বিবৃতি দিলে পরিস্থিতি আরো খারাপের দিকে যেতে পারে।

সূত্র : এএফপি।