kalerkantho

সোমবার । ৭ আষাঢ় ১৪২৮। ২১ জুন ২০২১। ৯ জিলকদ ১৪৪২

সংক্ষিপ্ত

এভারেস্টের শিখরে ‘বিভাজনরেখা’ টানবে চীন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১১ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা সংক্রমণ এড়াতে এবার এভারেস্ট শিখরে ‘বিভাজন রেখা’ তৈরি করবে চীন। নেপালের দিক থেকে এভারেস্টে অভিযাত্রীদের থেকে করোনা সংক্রমণ যাতে না ছড়ায়, সেই কারণেই এই বিশেষ ব্যবস্থা নিচ্ছে চীন। চীনের সংবাদমাধ্যমের তরফ থেকে বলা হয়েছে, নেপালের দিক থেকে যে এভারেস্ট অভিযান শুরু হয়েছে, সেখানে শুরুতেই বেশ কয়েকজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সেই খবর নিশ্চিত হওয়ার পরেই চীনের প্রশাসন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন পর্যন্ত যা খবর পাওয়া গেছে, তাতে নেপালের দিক থেকে অভিযাত্রীদের মধ্যে ৩০ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। নেপালেও করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে প্রবল শক্তিতে। চীনে যাতে এভারেস্টের পথে সংক্রমণ ঢুকে না পড়ে সে কারণেই এই বিভাজন রেখা তৈরির পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এভারেস্টের দক্ষিণ ঢাল রয়েছে নেপালের দিকে, উত্তর ঢাল রয়েছে চীনের দিকে। চীনের দিক থেকে এ বছর ২১ জন এভারেস্ট অভিযানে যাচ্ছেন। তাঁরা এপ্রিল মাস থেকে তিব্বতে কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। এদিকে নেপালের বেসক্যাম্পেও এবার অভিযাত্রীর ভিড় রয়েছে। তিব্বতের দিক থেকে সংক্রমণের খবর না এলেও নেপালের দিক থেকে ৩০ জন আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর মিলেছে। সাধারণত শিখর জয়ের পথে এই দুই ঢালের পর্বতারোহীদের সাক্ষাতের সম্ভাবনা থাকতে পারে। সেই সাক্ষাতের ফলে যাতে করোনা সংক্রমণ না হয়, সেই কারণেই এই বিভাজন রেখা তৈরি কার হচ্ছে বলে জানিয়েছে চীনা সংবাদমাধ্যম। যদিও কিভাবে এই রেখা তৈরি হবে, তা এখনো স্পষ্ট করা হয়নি। গত শুক্রবার নেপালে ৯ হাজার ২৩ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়, যা দেশটিতে দৈনিক শনাক্তের রেকর্ড। এদিকে চীন সরকার নিজে দেশে কভিড-১৯ সংক্রমণের বিস্তার বেশ নিয়ন্ত্রণে এনে ফেলেছে। শনিবার দেশটিতে মাত্র ১২ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়; যাদের সবাই বিদেশফেরত।

সূত্র : রয়টার্স।