kalerkantho

সোমবার । ৭ আষাঢ় ১৪২৮। ২১ জুন ২০২১। ৯ জিলকদ ১৪৪২

জেরুজালেমে ফের সংঘর্ষ

আহত তিন শতাধিক

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১১ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জেরুজালেমে ফের সংঘর্ষ

জেরুজালেমে আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণ থেকে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের গ্রেপ্তার করে ইসরায়েলি বাহিনী। গতকাল তোলা। ছবি : এএফপি

জেরুজালেমে ইসরায়েলি পুলিশ ও ফিলিস্তিনিদের সংঘর্ষে তিন শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে। আহতদের বেশির ভাগই ফিলিস্তিনি। গতকাল সোমবার জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ ও এর আশপাশের এলাকায় এই সংঘর্ষ হয়। এর আগে গত শুক্রবার রাতেও সেখানে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত হয় দুই শতাধিক মানুষ।

১৯৬৭ সালের এক যুদ্ধে জেরুজালেমের কিছু অংশ দখল করে নেয় ইসরায়েল। এর পর থেকে প্রতিবছর ‘জেরুজালেম দিবস’ উদযাপন করে আসছে ইসরায়েল সরকার। প্রায় প্রতিবছরই দিবসটিতে জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষ হয়। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, গতকাল ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীরা পাথর নিক্ষেপ করে। জবাবে শব্দ বোমা (সাউন্ড গ্রেনেড) ও রাবার বুলেট ছুড়ে ইসরায়েলের দাঙ্গা পুলিশ।

ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জানিয়েছে, কয়েক ঘণ্টা ধরে চলতে থাকা এই সহিংসতায় তিন শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে প্রায় ২০০ জন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ইসরায়েলি পুলিশ জানিয়েছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা হিসেবে জেরুজালেম দিবসে আল-আকসার পবিত্র প্লাজা এবং বাইবেলে বর্ণিত ইহুদি মন্দির হিসেবে ইহুদিরা যে স্থানটিকে শ্রদ্ধা করে, সেখানে ইহুদিদের পরিদর্শনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

মুসলিমদের কাছে অন্যতম পবিত্র স্থান হিসেবে পরিচিত আল-আকসায় চলতি মাসের শুরু থেকেই অস্থিরতা বিরাজ করছে।

পুলিশ জানিয়েছে, জেরুজালেম দিবস উপলক্ষে প্রতিবছর কয়েক হাজার ইহুদি তরুণ ইসরায়েলের পতাকা নিয়ে পুরনো শহরের দামেস্ক ফটক হয়ে মুসলিম অধ্যুষিত এলাকাগুলোর ভেতর দিয়ে মিছিল নিয়ে যায়। এবার এই মিছিলটিকে অন্য পথে চালিত করা যায় কি না, তা বিবেচনা করে দেখা হচ্ছে।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর মুখপাত্র ওফির গেনডেলমানের ভাষ্য, ‘আজ (সোমবার) সহিংসতা চালানোর জন্য উগ্রপন্থী ফিলিস্তিনিরা আগে থেকেই পরিকল্পনা করে রেখেছিল। আমরা এখন যা দেখছি, তা ওই পরিকল্পনার ফল।’

পুলিশ জানিয়েছে, শান্তি রক্ষার স্বার্থে তারা জেরুজালেমের বিভিন্ন সড়ক ও ভবনের ছাদে কয়েক হাজার পুলিশ মোতায়েন করেছে।

জেরুজালেমের একটি অংশ দখল করে নিলেও এখনো আন্তর্জাতিক আইন কিংবা বিশ্বসম্প্রদায়ের স্বীকৃতি অর্জন করতে পারেনি ইসরায়েল। তার পরও তারা জেরুজালেমকে নিজেদের রাজধানী হিসেবে বিবেচনা করে। যুক্তরাষ্ট্রসহ হাতে গোনা কয়েকটি দেশ এখন পর্যন্ত জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। সূত্র : এএফপি।