kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

সংক্ষিপ্ত

‘ছিন্নভিন্ন দেহগুলো স্তূপ হয়ে ছিল’

কাবুলে স্কুলে বিস্ফোরণ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১০ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘বিস্ফোরণের পর সেখানে ছুটে গিয়েছিলাম। গিয়ে দেখি, চারপাশে শুধু লাশ, ছিন্নভিন্ন হাত, পা, মাথা, থেঁতলানো দেহ। ওরা সবাই ছাত্রী। দেহগুলো স্তূপ হয়ে ছিল’—এভাবেই বিস্ফোরণস্থলের বর্ণনা দেন আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের সাইয়্যেদ-আল-সুহাদা স্কুলের দুই ছাত্রীর অবিভাবক মোহাম্মদ তাকি। কাবুলের পশ্চিমাঞ্চলে হাজারা শিয়া অধ্যুষিত এলাকার এই স্কুলের সামনে গত শনিবার কয়েক দফা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৫০ জন নিহত হয়, আহত হয় শতাধিক। তাকি জানান, তাঁর দুই মেয়েও ওই স্কুলে পড়ে, সৌভাগ্যক্রমে তারা বেঁচে গেছে। কাবুলের একটি পাহাড়ের ওপরের কবরস্থানে গতকাল রবিবার নিহত ছাত্রীদের অনেককে দাফন করা হয়। ওই এলাকার একজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী মির্জা হোসেইন জানান, স্কুলের শিক্ষার্থীরা কয়েক দিন আগে শিক্ষকসংকটের সমাধান ও শিক্ষা উপকরণের দাবিতে বিক্ষোভ করেছিল। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, এর প্রতিক্রিয়ায় তারা যা পেল, এটাই ছিল তাদের জন্য ‘বার্তা’। স্কুলে হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছে তালেবান। তদের দাবি, ওয়াশিংটনের সঙ্গে চুক্তি সইয়ের পর গত বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে কোনো সহিংসতায় জড়িত নয় তারা। মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো বাহিনীর সেনা প্রত্যাহারের মধ্য দিয়ে আফিগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে, এমনটা মনে করা হলেও এখন পর্যন্ত এর কোনো নজির দেখা যায়নি। অনেক ক্ষেত্রে সহিংসতা বেড়ে গেছে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা। আফগান সরকার ও তালেবানের মধ্যকার শান্তি আলোচনাও আলোর মুখ দেখেনি। সূত্র : এএফপি।