kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

আর্মেনিয়ায় ‘গণহত্যা’র স্বীকৃতি দিচ্ছেন বাইডেন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আর্মেনিয়ায় ‘গণহত্যা’র স্বীকৃতি দিচ্ছেন বাইডেন

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় আর্মেনিয়ায় চলা হত্যাকাণ্ডকে ‘গণহত্যা’ হিসেবে স্বীকৃতি দিতে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এই ঘোষণার মধ্য দিয়ে বাইডেনই হবেন প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট, যিনি আর্মেনিয়ার ১৫ লাখ মানুষকে হত্যার ঘটনাকে গণহত্যা বলে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেবেন।

আগামী শনিবার আর্মেনীয় হত্যাকাণ্ডের ১০৬তম বার্ষিকীতে বাইডেনের এসংক্রান্ত ঘোষণা দেওয়ার কথা। গত বুধবার মার্কিন গণমাধ্যমে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।

বাইডেনের এমন পদক্ষেপ ন্যাটোর মিত্র দেশ তুরস্কের সঙ্গে মার্কিন প্রশাসনের উত্তেজনা আরো বাড়িয়ে তুলতে পারে বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করেন। বাইডেনের এই পদক্ষেপের আইনগত কোনো প্রভাব না থাকলেও তাঁর সিদ্ধান্ত আংকারাকে ক্ষিপ্ত করে তুলতে পারে। কারণ তুরস্ক ওই হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ সব সময় তীব্রভাবে প্রত্যাখ্যান করে আসছে। যদিও ইতিমধ্যে ফ্রান্স ও রাশিয়াসহ ডজনখানেক দেশ আর্মেনিয়ায় প্রথম বিশ্বযুদ্ধকালে গণহত্যা হয়েছে বলে স্বীকৃতি দিয়েছে।

আর্মেনিয়া ইস্যুতে বাইডেনের ওই সিদ্ধান্ত আসার আগে মার্কিন হাউস ইন্টেলিজেন্স কমিটির প্রধান অ্যাডাম শিফ প্রেসিডেন্ট বাইডেনের উদ্দেশে একটি চিঠি পাঠান। চিঠিতে তিনি কংগ্রেসের এক শরও বেশি সদস্যের প্রতিনিধিত্ব করে লেখেন, কয়েক দশক ধরে বিশ্বের অন্যান্য দেশের নেতারা বিশ শতকের এই হত্যাকাণ্ডকে প্রথম গণহত্যা বলে স্বীকৃতি দিলেও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট এ বিষয়ে নীরব ছিলেন। নীরবতা ভেঙে আর্মেনিয়ার এই হত্যাকাণ্ডকে এবার গণহত্যার স্বীকৃতি দিতে তিনি বাইডেনকে অনুরোধ জানান।

নিউ ইয়র্ক টাইমস ও ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের মতে, ১৯১৫ সালে এই হত্যাকাণ্ড শুরু হয়। অটোমান সেনারা প্রথম বিশ্বযুদ্ধকালে জারশাসিত রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সময় ১৫ লাখ মানুষকে হত্যা করে। যে অঞ্চলে ওই হত্যাকাণ্ড ঘটে, বর্তমানে তা আর্মেনিয়া নামে পরিচিত। সূত্র : এএফপি।



সাতদিনের সেরা