kalerkantho

সোমবার । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৭ মে ২০২১। ০৪ শাওয়াল ১৪৪

করোনার তাণ্ডবেও বিজেপির ভোট প্রচারে রাশ নেই

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২০ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতের পশ্চিমবঙ্গে করোনা পরিস্থিতি মাথায় রেখে বামপন্থীরা সব বড় সভা বন্ধ করেছে। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বাতিল করেছেন রাজ্যের সব সফর। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও জানিয়েছেন, কলকাতায় আর কোনো বড় সভা বা কর্মসূচি করবেন না। সর্বত্র বত্তৃদ্ধতাও হবে ছোট। তবে অপরিবর্তিতই থাকছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রস্তাবিত কর্মসূচি। কলকাতায়ও সমাবেশ করবেন তিনি। বিজেপি সূত্রে জানানো হয়েছে, এসবই হবে করোনাবিধি মেনে। কারণ তেমনটিই নির্দেশ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর।

গোটা দেশের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গেও করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে। প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমিতের সংখ্যা। করোনা পরিস্থিতি নিয়ে রবিবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এহেন পরিস্থিতির মধ্যেই রাজ্যে ভোট প্রচারে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে দুই দিনে চারটি সমাবেশ করার কথা থাকলেও তা এক দিনেই সারবেন বলে জানা গেছে বিজেপি সূত্রে। একই সঙ্গে প্রতিটি জনসভায় সামাজিক দূরত্ববিধি কঠোরভাবে মানা হবে। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকেই এই নির্দেশ এসেছে বলে সোমবার জানালেন রাজ্য বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি মাথায় রেখে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সভার রূপ বদল করতে হবে। সামাজিক দূরত্ববিধিতে বিশেষ নজর দিতে হবে।’

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে এখন পর্যন্ত মোট ১২ বার বাংলায় এসেছেন মোদি। এ পর্যন্ত ১৮টি সমাবেশ করেছেন। বিজেপি সূত্রে আগে জানা গিয়েছিল, আগামী ২১ ও ২৪ এপ্রিল দুটি সফরে চারটি সমাবেশ করবেন তিনি। বিজেপির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আগামী ২৩ এপ্রিল শুক্রবার একই দিনে চারটি সমাবেশ করবেন মোদি। মালদহের বিএড কলেজ ময়দান, মুর্শিদাবাদের নর্দার্ন পার্ক, কলকাতার ভবানীপুর এবং বীরভূমের সিউড়িতে।

এমনিতেই মোদির প্রচারের সময় যাঁরা তাঁর সংস্পর্শে আসেন সভার আগে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাঁদের কভিড পরীক্ষা বাধ্যতামূলক। এখন সেই নিয়মে আরো কড়াকড়ির চিন্তা করছে রাজ্য বিজেপি।

সূত্র : আনন্দবাজার।