kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

ধর্ষণ এড়াতে পোশাক সচেতন হওয়ার পরামর্শ

প্রকাশ্যে ইমরানকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১১ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রকাশ্যে ইমরানকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি করেছেন দেশটির মানবাধিকারকর্মীরা। গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের জাতীয় প্রেস ক্লাবের বাইরে বিক্ষোভ করে দেশটির মানবাধিকারকর্মী ও সুধীসমাজের প্রতিনিধিরা এ দাবি জানান।

সম্প্রতি পাকিস্তানের টেলিভিশনে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইমরান খান ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ার জন্য অশ্লীলতা ও নারীদের খোলামেলা পোশাককে দায়ী করেন। এর পরই ওই মন্তব্যের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানায় মানবাধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন গোষ্ঠী।

অধিকারকর্মীরা বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড ও ব্যানার হাতে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ করেন। তাঁরা জানান, ইমরানের এমন মন্তব্য ধর্ষকদের আরো উৎসাহ জোগাবে। এক অধিকারকর্মী বলেন, ‘একজন সাধারণ মানুষ এমন কথা বললে এটা একটা মতামত বলে ধরে নেওয়া যেতে পারে। কিন্তু যখন দেশের প্রধানমন্ত্রী এ ধরনের মন্তব্য করেন তখন তা একধরনের নীতিগত বিবৃতি হয়ে যায়। নারীদের পোশাক পরার ওপর যখন এমন অপরাধের বোঝা চাপিয়ে দেওয়া হয়, তখন আমরা এ ধরনের বক্তব্যকে উপেক্ষা করতে পারি না।’

গত সপ্তাহে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইমরান সমাজে ধর্ষণ ও যৌন হয়রানি বেড়ে যাওয়ার পেছনে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির পরিবর্তে ‘অশ্লীলতা’কে দায়ী করেন। তিনি নারীদের শালীন পোশাক পরার পরামর্শ দিয়ে বলেন, ‘সমাজে নারীদের ধর্ষণের ঘটনা খুব দ্রুত হারে বাড়ছে।’ নারীদের পর্দা মেনে চলার উপদেশ দিয়ে তিনি বলেন, ‘ইসলাম ধর্মে পর্দার ধারণা এসেছে মূলত প্রলোভন এড়ানোর জন্যই। এই প্রলোভন এড়ানোর ইচ্ছাশক্তি সবার নেই।’

শিশু নির্যাতনের ঘটনা বেড়ে যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘কিছু যুদ্ধ আছে যা সরকার ও আইন প্রণয়নকারীরা একা লড়ে জিততে পারে না। এ যুদ্ধে সমাজকেও অংশ নিতে হয়।’ তিনি আরো জানান, অশ্লীলতা থেকে নিজেদের রক্ষা করা সমাজের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। সূত্র : দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া।