kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩ আষাঢ় ১৪২৮। ১৭ জুন ২০২১। ৫ জিলকদ ১৪৪২

আফ্রিকার ধরন ঠেকাতে কার্যকর ফাইজারের টিকা

সুরক্ষা দেবে অন্তত ছয় মাস

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আফ্রিকার ধরন ঠেকাতে কার্যকর ফাইজারের টিকা

মার্কিন ফার্মা জায়ান্ট ফাইজার ও জার্মান সংস্থা বায়োএনটেকের তৈরি করোনাভাইরাসের টিকা দক্ষিণ আফ্রিকায় পাওয়া অতিসংক্রামক ধরনের বিরুদ্ধে উচ্চমাত্রায় কার্যকর। এই প্রতিষেধক করোনাভাইরাস থেকে অন্তত ছয় মাস সুরক্ষা দেবে।

গত বৃহস্পতিবার হালনাগাদ উপাত্তের ভিত্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছে মার্কিন বহুজাতিক ওষুধ কম্পানি ফাইজার। প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, দক্ষিণ আফ্রিকায় তাদের তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালে টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণকারীদের কাউকেই করোনায় আক্রান্ত হতে দেখা যায়নি। করোনার বি.৩.৩৫১ ধরন ছড়িয়ে পড়া দক্ষিণ আফ্রিকায় ৮০০ জন স্বেচ্ছাসেবী ট্রায়ালে অংশ নিয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে ৯ জন কভিড-১৯ আক্রান্ত হন, যাঁদের প্ল্যাসবো (স্যালাইন-জাতীয় প্রতিক্রিয়াহীন ওষুধ গ্রহণকারী) দেওয়া হয়েছিল।

৪৪ হাজার মানুষের ওপর পরীক্ষার ভিত্তিতে গত নভেম্বরে ফাইজার-বায়োএনটেক জানিয়েছিল, তাদের টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকর। এখন হালনাগাদ ট্রায়ালের তথ্যে এই টিকার কার্যকারিতা ৯১.৩ শতাংশ এসেছে। অবশ্য সেই সময়ের চেয়ে এখন বিশ্বে করোনার ধরনের সংখ্যা অনেক বেড়েছে।

ভারতে এক দিনে ৮১ হাজার শনাক্ত

এদিকে প্রতিবেশী ভারতে গতকাল শুক্রবার এক দিনে প্রায় ৮১ হাজার জনের করোনা ধরা পড়েছে। গত ২৮ সেপ্টেম্বরের পর এক দিনে এই বিপুলসংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত হলো। এর আগে বৃহস্পতিবার এক দিনে শনাক্ত হয় ৭২ হাজার। গতকাল আক্রান্তদের মধ্যে ৪৩ হাজার জনই মহারাষ্ট্রের। চলমান মহামারিতে ২৪ ঘণ্টায় এটিই রাজ্যের সর্বোচ্চ শনাক্ত সংখ্যা। দেশটিতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক কোটি ২৩ লাখ তিন হাজার ১৩১ জনে।

তবে এত কিছুর মধ্যেও ইতিবাচক দিক হলো ভারতে টিকাদান কর্মসূচি গতি পেয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৩৬ লাখ ৭১ হাজার জনকে প্রতিষেধক দেওয়া হয়েছে, যা এক দিনের নিরিখে সর্বোচ্চ সংখ্যা। এখন পর্যন্ত ছয় কোটি ৮৭ লাখ ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে ভারতে। সূত্র : এএফপি, পিটিআই।



সাতদিনের সেরা