kalerkantho

বুধবার । ৯ আষাঢ় ১৪২৮। ২৩ জুন ২০২১। ১১ জিলকদ ১৪৪২

যুক্তরাষ্ট্র-কানাডার ওপর চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

উইঘুর বিতর্ক

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৯ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিনচিয়াং অঞ্চলে উইঘুরদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা চীনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর এবার দেশ দুটির ওপর পাল্টা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে চীন। গত শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের দুই কর্মকর্তা এবং কানাডার এক এমপি ও একটি মানবাধিকার সংগঠনের ওপর এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের যে দুজনকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে তাঁরা হলেন ইউএস কমিশন অন ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডমের দুই সদস্য গেইলে মানচিন ও টনি পারকিন্স। অন্যদিকে কানাডায় নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকবেন দেশটির এমপি মাইকেল চং এবং মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা দেশটির পার্লামেন্টারি কমিটি। এসব সংগঠন ও ব্যক্তি চীনের কোনো নাগরিক বা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ব্যাবসায়িক সম্পর্ক স্থাপন করতে পারবেন না বলে জানিয়েছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ ছাড়া তাঁরা চীনের মূল ভূখণ্ড, হংকং ও ম্যাকাওয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না। এসংক্রান্ত এক বিবৃতিতে বেইজিং বলেছে, গুজব ও ভুল তথ্যের ওপর ভিত্তি করে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা চীনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। তাদের অবশ্যই শিনচিয়াং বিষয়ে রাজনৈতিক কারসাজি বন্ধ করে চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের চর্চা বন্ধ করতে হবে। তা না হলে ভুগতে হবে তাদের।

এদিকে এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা ভিত্তিহীন এবং এটি শিনচিয়াংয়ের ‘জেনোসাইড’কে আরো স্পষ্ট করে তুলবে। শনিবার এক বিবৃতিতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেন, মানবাধিকার ও মৌলিক স্বাধীনতা নিয়ে যারাই কথা বলেছে, বেইজিং তাদেরই থামানোর চেষ্টা করেছে। এর ফলে শিনচিয়াংয়ে মানবতার বিরুদ্ধে চলমান জেনোসাইড ও অপরাধের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সতর্কতা আরো বাড়ছে। এ ছাড়া নিষিদ্ধ মার্কিন কর্মকর্তা চং এই নিষেধাজ্ঞাকে ‘সম্মানের প্রতীক’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেছেন, ‘আমরা যারা গণতন্ত্রের মধ্যে আইনের শাসনে বসবাস করি, তাদের উচিত যারা কথা বলতে পারছে না, তাদের হয়ে মুখ খোলা।’

অন্যদিকে এই নিষেধাজ্ঞাকে স্বচ্ছতা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার ওপর আঘাত হিসেবে অভিহিত করেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। দেশটির কূটনীতিক মার্ক গার্নেয়াউও এ ঘটনায় চীনের কড়া সমালোচনা করেছেন। এর আগে নিষেধাজ্ঞার পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাজ্যের ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে চীন। সূত্র : এএফপি।



সাতদিনের সেরা