kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

ক্ষোভে বঞ্চনায় মমতাকে ছাড়ছেন বিধায়করা

আজ মোদির ব্রিগেড সমাবেশ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৭ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্ষোভে বঞ্চনায় মমতাকে ছাড়ছেন বিধায়করা

তৃণমূল আর রাজ্যসভা আগেই ছেড়ে গেছেন দীনেশ ত্রিবেদী। ভারতীয় জনতা পার্টিতে (বিজেপি) আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দিলেন গতকাল শনিবার। এদিকে তৃণমূলের টিকিট না পাওয়ার ক্ষোভে গতকাল বিজেপিতে ভিড়েছেন সোনালি গুহ আর জটু লাহিড়ীও।

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা গত শুক্রবার ঘোষণা করেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তালিকা থেকে বাদ পড়ায় সেদিন সন্ধ্যায় সবার সামনে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন সোনালি। গতকাল সোনালি জানান বিজেপিতে যোগদানের বিষয়ে আলোচনাও শুরু হয়েছে। সন্ধ্যা ৭টার পরেই এ বিষয়ে চূড়ান্ত কিছু জানতে পারব।

ক্ষোভ নিয়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া আরেক নেতা হাওড়ার শিবপুরের বিধায়ক জটু লাহিড়ী। গতকাল সকালে বিধাননগরে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের বাড়িতে তিনি গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেন। জটু লাহিড়ী অবশ্য দাবি করেছেন, ‘তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় জায়গা না পাওয়ার ক্ষোভ নয়, আমি বিজেপির হয়ে কাজ করতে চাই, তাই আজ মুকুল রায়ের বাড়িতে গিয়ে বিজেপিতে যোগদান করলাম।’

গতকাল বিজেপিতে যোগ দেন দীনেশ ত্রিবেদীও।

পদ্মশিবিরে নাম লেখানোর পরই মমতাকে একহাত নেন দীনেশ। ‘খেলা হবে’ স্লোগানে রাজ্যে নির্বাচনী পারদ যখন চড়ছে, তখন এ নিয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলার মানুষ তৃণমূলকে প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা উন্নয়ন চায়, দুর্নীতি আর হিংসা নয়। পরিবর্তনের জন্য মুখিয়ে রয়েছে বাংলার মানুষ। রাজনীতি কোনো খেলা নয়। উনি (মমতা) খেলার চক্করে আদর্শ ভুলে গেছেন।’

শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে গত বছর ডিসেম্বরে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যাওয়ার যে হিড়িক শুরু হয়েছিল, ভোটের সপ্তাহ তিনেক আগেও তা অব্যাহত। দীনেশকে দলে পেয়ে নড্ডা বলেন, ‘দীনেশ সঠিক মানুষ। এত দিন ভুল দলে ছিলেন। এত দিনে ঠিক জায়গায় এলেন।’

ব্রিগেডে মোদির সভা আজ : আজ কলকাতার ব্রিগেডে প্রধানমন্ত্রী মোদির জনসভা। সেই সভা দিয়ে নীলবাডির লড়াইয়ে চূড়ান্ত পর্বের প্রচার শুরু করতে চায় বিজেপি। এই সমাবেশকে বিজেপি এতটাই গুরুত্ব দিচ্ছে যে ২ ও ৩ মার্চের বাংলা সফর বাতিল করেন অমিত শাহ। বিজেপি সূত্রে খবর, সফর বাতিলের পাশাপাশি রাজ্য নেতৃত্বকে অমিত এমন নির্দেশও দিয়েছেন যে সমাবেশের এমন চেহারা হওয়া চাই যাতে রাজ্যজুড়ে গেরুয়া হাওয়া তৈরি হয়ে যায়। আর সেই লক্ষ্যে বিজেপি শুধু দক্ষিণ নয়, উত্তরবঙ্গ থেকেও কর্মী, সমর্থকদের নিয়ে আসতে চায় কলকাতায়। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

মন্তব্য