kalerkantho

শুক্রবার । ৩ বৈশাখ ১৪২৮। ১৬ এপ্রিল ২০২১। ৩ রমজান ১৪৪২

মিয়ানমারে অভ্যুত্থান

জান্তা সরকারের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বাতিল

মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞার আহ্বান

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজনৈতিক, কূটনৈতিক কিংবা অর্থনৈতিক—সব ধরনের চাপই বাড়ছে মিয়ানমারের জান্তা সরকারের ওপর। ফেসবুক জানিয়েছে, জান্তা সরকারের সব অ্যাকাউন্ট তারা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর এই সিদ্ধান্ত তারা নিয়েছে বিক্ষোভকারীদের ওপর জান্তা সরকারের চালানো দমন-পীড়নের প্রতিবাদ হিসেবে।

অন্যদিকে মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র বিক্রির ওপর যেন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়, সে জন্য জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিশ্বের প্রায় ১৪০টি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা (এনজিও)।

গত নভেম্বরের নির্বাচন নিয়ে অং সান সু চির নেতৃত্বাধীন সরকারের সঙ্গে সেনাবাহিনীর টানাপড়েন চলছিল। এর মধ্যে ১ ফেব্রুয়ারি দেশটিতে সামরিক অভ্যুত্থান ঘটে। গ্রেপ্তার করা হয় স্টেট কাউন্সেলর সু চি ও প্রেসিডেন্ট উয়িন মিন্টসহ ‘ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি’র (এনএলডি) শীর্ষ নেতাদের। জারি করা হয় এক বছরের জরুরি অবস্থা। সেনাবাহিনী প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, এক বছর পর নতুন নির্বাচন দেওয়া হবে। তবে সাধারণ মানুষ এই প্রতিশ্রুতি বিশ্বাস করছে না। তারা অবিলম্বে গণতন্ত্র পুনর্বহালের দাবিতে রাজপথে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে। অন্যদিকে বিক্ষোভকারীদের দমাতে ধরপাকড় কিংবা ইন্টারনেট বন্ধ করা থেকে শুরু করে গুলি চালানোর মতো কঠোর পদক্ষেপও নিচ্ছে জান্তা সরকার। নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে এ পর্যন্ত চার বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন।

এ অবস্থায় গতকাল ফেসবুকের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘১ ফেব্রুয়ারির অভ্যুত্থানের পর থেকে বিক্ষোভকারীদের ওপর নির্যাতন চালানোসহ যেসব ঘটনা ঘটেছে, তার প্রেক্ষাপটে জান্তা সরকার ও শীর্ষ সেনা কর্মকর্তাদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা অপরিহার্য হয়ে পড়েছে। আমরা বিশ্বাস করি, জান্তা সরকারকে ফেসবুক কিংবা ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হলে তা বড় ধরনের ঝুঁকি তৈরি করতে পারে।’ জান্তা সরকারের সব অ্যাকাউন্ট বন্ধের সিদ্ধান্ত শিগগিরই কার্যকর হবে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে জাতিসংঘের উদ্দেশে গতকাল একটি খোলা চিঠি দিয়েছে বিশ্বের ৩১টি দেশের প্রায় ১৪০টি এনজিও। চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের উচিত অবিলম্বে মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা।’ চিঠিতে আরো বলা হয়, ‘চীন, ভারত, ইসরায়েল, উত্তর কোরিয়া, ফিলিপাইন, রাশিয়া কিংবা ইউক্রেনসহ অন্যান্য দেশের প্রতিও আমরা আহ্বান জানাচ্ছি, তারা যেন মিয়ানমারের কাছে কোনো ধরনের অস্ত্র বিক্রি না করে।’ সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য