kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭। ৪ মার্চ ২০২১। ১৯ রজব ১৪৪২

তোষণের রাজনীতি চলছে বাংলায় : মোদি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তোষণের রাজনীতি চলছে বাংলায় : মোদি

তৃণমূল নেতাদের সম্পত্তি, চাকচিক্য বাড়ছে। তোলাবাজ থাকলে, কাটমানি কালচার থাকলে, আইনের শাসন না থাকলে বাংলায় পরিবর্তন হবে না। বাংলায় বাড়িভাড়া নিতে গেলেও কাটমানি লাগে। সিন্ডিকেটকে টাকা না দিলে তাও পাওয়া যাবে না। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস সরকারকে এভাবেই আক্রমণ করলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মোদি গতকাল সোমবার পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলায় সমাবেশ করেন। পশ্চিমবঙ্গে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে এটাকে মোদির নির্বাচনী সমাবেশ বলেই মনে করা হচ্ছে। কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি উঠেপড়ে পশ্চিমবঙ্গ দখলের ঘোষণা আগেই দিয়ে রেখেছে।

হুগলির জনসভায় শুরুতেই মোদি বললেন, ‘বাংলা পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে।’ এদিন বাংলাতেই ভাষণ শুরু করেন তিনি। কেন্দ্রীয় সরকারের উন্নয়নের খতিয়ানও দেন। বলেছেন, ‘রেল, মেট্রো প্রকল্পে সুবিধা হবে বাংলার।’

মমতাকে আক্রমণ করে মোদি বলেন, ‘সরকারি একাধিক প্রকল্প থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বাংলা। পরিশ্রুত জলের থেকেও বঞ্চনা করা হয়েছে। এখানে শিল্পের কী অবস্থা তা সকলের জানা। বাংলায় আসল পরিবর্তন দরকার। এই জন্যই বিজেপিকে ক্ষমতায় আনা দরকার।’ হলদিয়ার মতোই এখানের জনসভায় দাঁড়িয়েও তিনি মন্তব্য করেছেন, ‘এই সরকারকে মানুষ ক্ষমা করবে না।’

তিনি বলেন, ‘বাংলায় বিনিয়োগ করার লোকের অভাব নেই। কিন্তু এখানকার সরকার যে পরিবেশ তৈরি করেছে, যেভাবে সিন্ডিকেটের হাতে বাংলাকে তুলে দেওয়া হয়েছে, তাতেই কেউ আর উৎসাহ দেখাচ্ছে না।’

তাঁর দাবি, ‘বাংলায় বিনিয়োগ করতে মুখিয়ে রয়েছেন অনেকেই। কিন্তু এখানকার সরকার যে পরিবেশ তৈরি করেছে, যেভাবে সিন্ডিকেটের হাতে বাংলাকে তুলে দিয়েছে, তাতে অনেকেই বিমুখ হয়ে পড়ছেন। বিদেশে যখন প্রবাসী বাঙালিদের সঙ্গে দেখা হয়, সবাই মাতৃভূমির উন্নতিতে যোগদানে প্রস্তুত। কিন্তু করবেন কী করে। এখানে ঘরভাড়া নিতে গেলেও কাটমানি দিতে হয়। সিন্ডিকেটের অনুমতি ছাড়া ভাড়ায় ঘরও পাওয়া যায় না এখানে।’ সূত্র : পিটিআই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা