kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্ক দুই পক্ষেরই লাভ চান এরদোয়ান

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা বৈরী সম্পর্কের অবসান ঘটিয়ে দুই দেশই লাভবান হয়, এমন সম্পর্ক গড়ে তুলতে চান তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান। গত শনিবার টুইটারে পোস্ট করা এক ভিডিওর মাধ্যমে এ কথা জানান তিনি।

ভিডিও বার্তায় এরদোয়ান বলেন, ‘তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ স্বার্থগুলো দুই পক্ষের মধ্যে বিদ্যমান মতপার্থক্যকে ছাড়িয়ে গেছে। আমেরিকার নতুন প্রশাসনের সঙ্গে নুতন করে উভয় পক্ষের জন্য লাভজনক সম্পর্ক তৈরির আশা করছি আমরা।’

কিছু বিষয় নিয়ে তুরস্কের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের চাপ বাড়তে পারে জেনেও প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর জো বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন এরদোয়ান। তাঁর আশঙ্কা সত্যিও হয়েছে। এরই মধ্যে তুরস্কে ছাত্র বিক্ষোভে ধড়পাকড়ের তীব্র নিন্দা এবং দেশটির সুধীসমাজের গুরুত্বপূর্ণ নেতা ওসমান কাভালার মুক্তির জোর দাবি জানিয়েছে নতুন মার্কিন প্রশাসন। গণতন্ত্র রক্ষায় বাইডেনের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের অংশ হিসেবেই এ অবস্থান নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এ ছাড়া রাশিয়ার কাছ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র কেনাসহ আরো অনেক অনেক বিষয়ে তুরস্কের সঙ্গে দেশটির বিরোধ রয়েছে, যা দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা আরো বাড়াতে পারে।

সম্প্রতি ইরাকে তুরস্কের কুর্দিদের হামলায় তুরস্কের ১৩ নাগরিকের প্রাণহানির হয়েছে বলে আংকারার করা দাবিকে উড়িয়ে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এই ঘটনায় গত সোমবার তুরস্ক যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসীদের’ মদদ দেওয়ার অভিযোগ এনেছে এবং মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে। ওই দিনই অবশ্য যুক্তরাষ্ট্র ‘কুর্দি সন্ত্রাসীদের’ হামলায় তুরস্কের নাগরিকদের মৃত্যুর বিষয়টি স্বীকার করে। সূত্র : এএফপি।