kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

নেদারল্যান্ডসে কারফিউ ভেঙে দাঙ্গা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নেদারল্যান্ডসে কারফিউ ভেঙে দাঙ্গা

নেদারল্যান্ডসে করোনা মহামারি মোকাবেলায় সরকারের জারি করা কারফিউর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছে তরুণরা। সোমবার সন্ধ্যায় তেমনই বিক্ষোভকালে ধরপাকড় চালায় পুলিশ। ছবি : এএফপি

করোনা মোকাবেলায় কারফিউ জারির জের ধরে নেদারল্যান্ডসে সহিংসতা অব্যাহত আছে। গত সোমবার দ্বিতীয় রাতের মতো দেশটির বিভিন্ন স্থানে দাঙ্গা-হাঙ্গামার ঘটনা ঘটে। লকডাউন ও নৈশকালীন কারফিউ ভঙ্গের অভিযোগে পুলিশ অন্তত ১৫০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর নেদারল্যান্ডসে প্রথমবারের মতো রাতে কারফিউ জারি করা হয় গত শনিবার। সরকারি এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রবিবার আমস্টারডামসহ তিনটি শহরে বিক্ষোভে শামিল হয় কড়াকড়ির বিরুদ্ধে থাকা মানুষ। সে রাতে পুলিশের সঙ্গে কারফিউবিরোধীদের যেমন সংঘর্ষ হয়েছে, তেমনই অনেকে গ্রেপ্তারও হয়। পরদিন সোমবার বন্দরনগরী রোটারডামে দাঙ্গা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে একদল বিক্ষোভকারী। অনেক স্থানে লুটপাটের চেষ্টা হলে জলকামান ব্যবহার করে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীরা বিভিন্ন স্থাপনায় ভাঙচুর করেছে, লুটপাট করেছে দোকানপাট। তারা কয়েকটি বাসস্ট্যান্ড গুঁড়িয়ে দিয়েছে, অগ্নিসংযোগ করেছে। এমনকি পুলিশের ওপর পাথর ও দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করেছে। এ সময় সংঘাতের কবলে পড়ে আহত হয়েছেন গণমাধ্যমকর্মীরা।

রোটারডামের মেয়র আহমেদ আবু তালেব দাঙ্গাকারীদের ‘নির্লজ্জ চোর’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। রোটারডাম ছাড়াও হারলে আমার্সফুর্ট, জিলিন ও দ্যা হেগে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘাতের এই ঘটনাগুলোকে ‘৪০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ দাঙ্গা’ বলে মন্তব্য করেছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, বাবান্ট ও হার্টোজেনবোসচে হাসপাতালের ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করে দাঙ্গাকারীরা। পুলিশ হাসপাতালের প্রবেশমুখগুলো ব্যারিকেড দিয়ে রাখে এবং অ্যাম্বুল্যান্সগুলো বিভিন্ন ক্লিনিকে পাঠিয়ে দেয়। পুলিশপ্রধান উইলিয়াম উল্ডার্স জানিয়েছেন, দাহ্য পদার্থ ছোড়া দাঙ্গাকারী তরুণদের মোকাবেলা করছে পুলিশ। নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট বলেছেন, সহিংসতার ঘটনা একেবারেই অগ্রহণযোগ্য। সাধারণ মানুষ এসব বিশৃঙ্খলাকে সমর্থন করে না। সূত্র : এএফপি, আলজাজিরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা