kalerkantho

বুধবার । ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭। ৩ মার্চ ২০২১। ১৮ রজব ১৪৪২

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বললেন

করোনার নতুন ধরন আরো প্রাণঘাতী

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনার নতুন ধরন আরো প্রাণঘাতী

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তাঁর দেশে শনাক্ত হওয়া করোনাভাইরাসের নতুন ধরনটি মূল ধরনের চেয়ে বেশি প্রাণঘাতী হতে পারে। দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার পাশাপাশি লন্ডন ও যুক্তরাজ্যের দক্ষিণ-পূর্বে পাওয়া এ ধরনটিতে মৃত্যুহার বেশি হতে পারে বলে কিছু কিছু তথ্য-প্রমাণে মনে হচ্ছে।

নতুন এ ধরনটি এরই মধ্যে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। মূল ধরনের চেয়ে এটি প্রায় ৭০ শতাংশ বেশি সংক্রামক বলে শুরুতে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছিলেন। তবে সেটি বেশি প্রাণঘাতী—এমন প্রমাণ শুরুতে প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এখন দেশটির প্রধানমন্ত্রী সাম্প্রতিক তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে মৃত্যুঝুঁকি বাড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করলেন।

বরিস জনসন জানিয়েছেন, যুক্তরাজ্যে ভাইরাসের নতুন কোনো ধরনের প্রবেশ ঠেকাতে সীমান্তে আরো সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

যুক্তরাজ্যের গণিতজ্ঞরা বলছেন, নতুন ও পুরনো ধরনের আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যুহারের তুলনা করে দেখা গেছে, নতুন ধরনটি বেশি প্রাণঘাতী হতে পারে। যদিও এটি কতটা মারাত্মক, তা এখনই নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। তবে আশার কথা হলো, এরই মধ্যে প্রচলিত করোনার টিকাগুলো নতুন ধরনের বিরুদ্ধে কার্যকর হবে বলে প্রাথমিক বিশ্লেষণে মনে হচ্ছে।

যুক্তরাজ্য সরকারের প্রধান বৈজ্ঞানিক উপদেষ্টা প্যাট্রিক ভ্যালেন্স বলেছেন, এখন পর্যন্ত এ বিষয়ক যত তথ্য পাওয়া গেছে তা সিদ্ধান্তে পৌঁছনোর মতো যথেষ্ট নয়।

পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড, ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডন, লন্ডন স্কুল অব হাইজিন অ্যান্ড ট্রপিক্যাল মেডিসিন এবং ইউনিভার্সিটি অব এক্সেটার নতুন এ ধরনটি কতটা প্রাণঘাতী তা খতিয়ে দেখছে। তাদের পাওয়া তথ্য পর্যালোচনা করছেন নিউ অ্যান্ড ইমার্জিং রেসপিরেটরি ভাইরাস থ্রেটস অ্যাডভাইজরি গ্রুপের (এনইআরভিটিএজি) বিজ্ঞানীরা। এনইআরভিটিএজি বলছে, ভাইরাসের নতুন ধরনটির বেশি প্রাণঘাতী হওয়ার বাস্তব আশঙ্কা আছে, তবে এখনই এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না।

এদিকে শ্রীলঙ্কার স্বাস্থ্যমন্ত্রী পবিত্র ওয়ান্নিয়ারাচি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। করোনার সংক্রমণ থামাতে এক জাদুবিদ্যা প্রদর্শনীর অনুষ্ঠান উদ্বোধন করার পর তাঁর শরীরে ভাইরাসটির উপস্থিতি মিলেছে। মন্ত্রীর সংস্পর্শে যাঁরা এসেছিলেন তাঁদের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

বৈশ্বিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসাবে, গতকাল পর্যন্ত বিশ্বে ৯ কোটি ৯৫ লাখ মানুষ করোনা সংক্রমিত হয়েছে। এই সময়ে প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সোয়া ২১ লাখে। আর সেরে উঠেছে সোয়া সাত কোটি কভিড রোগী।

সূত্র : বিবিসি, এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা