kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

এক সপ্তাহে গেল এক লাখ প্রাণ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এক সপ্তাহে গেল এক লাখ প্রাণ

করোনায় প্রাণহানি নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) আশঙ্কাই সত্যি হলো। এক সপ্তাহের ব্যবধানে ভাইরাসটি বিশ্বের আরো এক লাখ মানুষের প্রাণ কেড়েছে। এতে গতকাল পর্যন্ত নথিবদ্ধ প্রাণহানির সংখ্যা ২১ লাখ ছাড়িয়েছে। এর আগে গত ১৫ জানুয়ারি এ সংখ্যা ছিল ২০ লাখ।

সম্প্রতি করোনায় দৈনিক প্রাণহানিতে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। গত বুধবার এযাবৎকালের মধ্যে সর্বোচ্চ ১৭ হাজার ৩৬৬ জনের মৃত্যু হয় করোনাজনিত কারণে। করোনায় প্রাণহানির সাম্প্রতিক প্রবণতা দেখে গত সোমবার ডাব্লিউএইচওর জরুরি স্বাস্থ্য কর্মসূচির প্রধান মাইকেল রায়ান বলেন, করোনাভাইরাসে সপ্তাহে লাখো মানুষের মৃত্যু হতে পারে। ডাব্লিউএইচওর কার্যনির্বাহী বোর্ডের ১৪৮তম অধিবেশনে তিনি এ আশঙ্কার কথা প্রকাশ করেন। সপ্তাহ শেষে তাঁর আশঙ্কার সত্য হলো।

বৈশ্বিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসাবে, গতকাল বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত বিশ্বে ৯ কোটি ৮১ লাখ ৯১ হাজার মানুষ করোনা সংক্রমিত হয়েছে। এ সময়ে প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১ লাখ দুই হাজার ৭৯৬। আর সেরে উঠেছে সাত কোটি ৫৯ লাখ কভিড রোগী।

চলমান মহামারিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে আড়াই কোটির মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে, যার মধ্যে চার লাখ ২০ হাজার মানুষ এরই মধ্যে প্রাণ হারিয়েছে। দেশটির নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন পরিস্থিতি মোকাবেলায় যুদ্ধকালীন ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন।

সংক্রমণের নিরিখে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ভারত। সেখানে এক কোটি সোয়া ছয় লাখ মানুষ করোনা সংক্রমিত হয়েছে। মারা গেছে এক লাখ ৫৩ হাজার মানুষ। অবশ্য দেশটিতে সুস্থতার হার আশাব্যঞ্জক। এরই মধ্যে সেরে উঠেছে এক কোটি দুই লাখ ৮৩ হাজার রোগী।

সংক্রমণের নিরিখে তৃতীয় স্থানে আছে ব্রাজিল। আক্রান্তে রাশিয়ার অবস্থান চতুর্থ, যুক্তরাজ্য পঞ্চম, ফ্রান্স ষষ্ঠ, তুরস্ক সপ্তম, ইতালি অষ্টম, স্পেন নবম ও জার্মানি আছে দশম অবস্থানে।

উহান লকডানের এক বছর : এক বছর আগে ২০২০ সালের ২৩ জানুয়ারি চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর প্রথম লকডাউন করা হয়। সে বছরের জুন পর্যন্ত উহানকে দেশের অন্যান্য এলাকা থেকে একেবারে বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়। এর আগে ২০১৯ সালের শেষ দিকে সেখানে মানবদেহে প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। উহানে ভাইরাসটি শনাক্ত হলেও এখনো ভাইরাসটির উৎসস্থল নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেননি বিজ্ঞানীরা। ভাইরাসটি দেশে দেশে ছড়াতে থাকলে কঠিন বিধি-নিষেধ এবং সেটার কঠোর বাস্তবায়নে হতবিহ্বল হয়ে পড়ে বিশ্ববাসী। সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা