kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

এবার বাইডেনকে লক্ষ্য করে ছক সাজাবেন উন!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এবার বাইডেনকে লক্ষ্য করে ছক সাজাবেন উন!

উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের জন্য গত বছরটা ছিল সবচেয়ে বিপর্যয়ের। অর্থনীতির ভগ্নদশার মধ্যে করোনা মহামারির কারণে নিরুপায় হয়ে কিমকে দেশের সীমান্ত বন্ধ করতে হয়েছে। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে চলা কয়েক দফা বৈঠকেও উত্তর কোরিয়ার ওপর যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা শিথিল হয়নি।

ট্রাম্পের সঙ্গে ব্যর্থ বৈঠকের পর উনের এখনকার লক্ষ্য যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। যদিও বাইডেন আগে তাঁর কোনো এক বক্তব্যে উনকে ‘ঠগ’ বলে সম্বোধন করেন। যেখানে বাইডেন ট্রাম্পের সম্পর্কে অভিযোগ করেন, ট্রাম্প উনের পারমাণবিক অস্ত্র কমানোর ব্যাপারে অর্থবহ কোনো কাজই করেননি বরং যা করেছেন, তা ছিল শুধু দেখানোর জন্য।

সম্প্রতি এক ভাষণে কিম বলেন, তিনি দেশের পারমাণবিক অস্ত্রশক্তি বৃদ্ধি করতে বধ্যপরিকর। তিনি এ বক্তব্যের মাধ্যমে আসলে বাইডেনকে বার্তা দিতে চেয়েছেন। তিনি বোঝাতে চেয়েছেন, দুই দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক নির্ভর করছে যুক্তরাষ্ট্রের নীতির ওপর। তবে কিম কত দিন এভাবে ধৈর্য নিয়ে বসে থাকবে, সে সম্পর্কে কোনো পরিষ্কার বার্তা তাঁর বক্তব্যে পাওয়া যায়নি। ইতিহাস বলে, উত্তর কোরিয়া প্রতিবারই যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রশাসনকে চাপে ফেলার জন্য হয় ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে অথবা অন্যান্য উসকানিমূলক কাজ করে থাকে।

সাম্প্রতিক সময়ে পিয়ংইয়ংয়ে সামরিক প্যারেডে কিম নতুন ক্ষেপণাস্ত্রের প্রদর্শনী করিয়েছে। যার মধ্যে ছিল সলিড ফুয়েল ব্যালিস্টিক সিস্টেম, যা যানবাহন বা সাবমেরিন থেকেও কাজ করবে। তা ছাড়া উত্তরের সবচেয়ে বড় ইন্টারকন্টিনেন্টাল ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রও (আইসিবিএম) সে প্যারেডে প্রদর্শন করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রে নতুন প্রেসিডেন্টের আগমনে দুই দেশের মধ্যে চলমান উত্তেজনা পুনরুজ্জীবিত হয়েছে। তবে দুই দেশকেই বিষয়টি নিয়ে ভাবতে হবে। কারণ কিম নিজের দেশ রক্ষার জন্য তার পারমাণবিক অস্ত্রই ব্যবহার করবে।

সূত্র : টাইমর অব ইন্ডিয়া।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা