kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ মাঘ ১৪২৭। ২৮ জানুয়ারি ২০২১। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সোমালিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারে নির্দেশ ট্রাম্পের

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৬ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে সোমালিয়া থেকে প্রায় সব মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছে পেন্টাগন। গত শুক্রবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানায় মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর। এর আগে ইরাক ও আফগানিস্তান থেকেও মার্কিন সেনার সংখ্যা কমিয়ে আনার নির্দেশ দেন ট্রাম্প।

আফ্রিকার দেশটিতে এখন সব মিলিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মাত্র ৭০০ সেনা রয়েছে; তারা স্থানীয় বাহিনীগুলোকে আল-শাবাব ও ইসলামিক স্টেটের (আইএস) মতো জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহযোগিতা করছে। মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সোমালিয়া থেকে সরিয়ে নেওয়া কিছু সেনাকে পাশের বিভিন্ন দেশে নিয়ে যাওয়া হবে; সেখান থেকেই তাঁরা ওই অঞ্চলে সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদবিরোধী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাবেন।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ট্রাম্প ইরাক ও আফগানিস্তান থেকেও মার্কিন সেনা কমিয়ে এনেছেন। দীর্ঘদিন ধরেই তাঁকে বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে থাকা মার্কিন সেনাদের দেশে ফিরিয়ে আনতে সচেষ্ট দেখা গেছে। দেশে দেশে যুক্তরাষ্ট্রের চালানো অভিযানের কট্টর সমালোচক ট্রাম্পের মতে, মার্কিন সামরিক বাহিনীর এ ধরনের অভিযানে অনেক অর্থ ব্যয় হলেও শেষ পর্যন্ত সেগুলো অকার্যকর হিসেবেও প্রমাণিত হয়।

ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস মিলার এক সপ্তাহ আগেই সোমালিয়া সফর করেন। তিনি ওই সময় বলেছিলেন, ওই অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্রদের স্বার্থের ওপর হামলার ঘটনা কমে এসেছে। এর এক সপ্তাহের মধ্যেই সেনা সম্পূর্ণ প্রত্যাহারের ঘোষণা এলো।

সোমালিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারে নির্দেশ দিয়ে ট্রাম্প কার্যত যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপারের নীতির বিপরীতে অবস্থান নিলেন বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। গত মাসে বরখাস্ত হওয়া এসপার সোমালিয়ায় মার্কিন সেনা উপস্থিতির পক্ষে ছিলেন। সূত্র : বিবিসি, এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা