kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জনগণের আস্থা ফেরাতে টিকা নেবেন বুশ ক্লিনটন ওবামা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জনগণের আস্থা ফেরাতে টিকা নেবেন বুশ ক্লিনটন ওবামা

নির্বাচনে কারচুপি, ভোট চুরি আর চুরির প্রমাণ সংগ্রহে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাঁর দেশের করোনা পরিস্থিতি রাত পোহালেই খারাপ হচ্ছে, কিন্তু সেদিকে নজর দেওয়ার মতো মানসিক অবস্থায় নেই তিনি। ট্রাম্পের এমন বেসামাল অবস্থার মধ্যেই সাবেক তিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশ, বিল ক্লিনটন ও বারাক ওবামা জানিয়েছেন, তাঁরা স্বেচ্ছায় ক্যামেরার সামনে করোনার টিকা নিতে প্রস্তুত। এতে সাধারণ মানুষের মধ্যে টিকার প্রতি আস্থা বাড়বে।

ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকর্তারা এত দিন করোনা পরিস্থিতিকে কিছুটা সহজ করে দেখানোর চেষ্টা করে এসেছেন, তবে এবার পরিবর্তন এসেছে সেখানেও। হোয়াইট হাউসের এক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ বলেন, ‘বাস্তবতা হচ্ছে ডিসেম্বর, জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে ভয়াবহ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাব আমরা। এ জাতির জনস্বাস্থ্যের ইতিহাসে এই সময়টা হবে সবচেয়ে কঠিন। মৃতের সংখ্যা এ মাসের মধ্যেই সাড়ে চার লাখ পার হয়ে যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের পরিচালক ডা. রবার্ট রেডফিল্ড।

তবে ট্রাম্প অগ্রাহ্য করলেও কভিডকে মোটেই ছোট করে দেখছেন না যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্টরা। রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশ সবার প্রথমে জানান, তিনি টিকা নিতে চান। এ নিয়ে দেশের শীর্ষ সংক্রামক বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচির সঙ্গেও কথা বলেন তিনি। বুশ এই টিকা নিতে চান সাধারণ মানুষের মধ্যে টিকা নিয়ে যে ভীতি রয়েছে, তা দূর করার জন্য। সাবেক এই প্রেসিডেন্টের চিফ অব স্টাফ ফ্রেডি ফোর্ড বলেন, প্রেসিডেন্ট বুশ টিকা নিতে চান এবং ক্যামেরার সামনেই। একই কথা বলেছেন বিল ক্লিনটনের প্রেস সেক্রেটারি। তিনিও এই টিকার প্রচার প্রক্রিয়াকে সহজ করার জন্যই টিকা নিতে আগ্রহী।

বারাক ওবামা সিরিয়াস এক্সএমকে দেওয়া এক সাক্ষাকৎকারে বলেছেন, ‘আমি হয়তো টিভি ক্যামেরার সামনেই এই টিকা নেব। যেন মানুষ জানতে পারে, বিজ্ঞানে আমার আস্থা আছে এবং আমি কভিডে আক্রান্ত হতে চাই না।’ তবে পূর্বসূরিদের এ উদ্যোগ হয়তো ট্রাম্পের খুব একটা ভালো লাগবে না। ট্রাম্প করোনাভাইরাস নিয়ে খুব একটা সচেতন না হলেও টিকা পাওয়ার কৃতিত্ব আর কাউকে কোনোভাবেই দিতে চান না। সূত্র : সিএনএন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা