kalerkantho

রবিবার। ৩ মাঘ ১৪২৭। ১৭ জানুয়ারি ২০২১। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

‘জাল’ ছবি নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রতিক্রিয়া

চীনের চরম লজ্জা হওয়া উচিত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকারি একটি টুইটার অ্যাকাউন্টে ‘অবমাননাকর’ ছবি পোস্ট করায় চীনকে দুঃখ প্রকাশ করতে বলেছে অস্ট্রেলিয়া। দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন গতকাল সোমবার বলেছেন, এ ধরনের ছবি পোস্ট করার জন্য বেইজিংয়ের ‘চরম লজ্জা’ হওয়া উচিত।

যে ছবি নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার এই আপত্তি, তাতে দেখা যায়, অস্ট্রেলিয়ার এক সেনা ছুরি দিয়ে এক আফগান শিশুকে হত্যা করছেন। ছবিতে অস্ট্রেলিয়ার সেনাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগও তোলা হয়। ছবিটি পোস্ট করেন চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান।

অবশ্য অস্ট্রেলিয়ায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ তদন্ত করছেন। তাতে খতিয়ে দেখা হচ্ছে, ২০০৫ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তানে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে অস্ট্রেলিয়ার স্পেশাল ফোর্সের সদস্যরা কোনো ধরনের যুদ্ধাপরাধ করেছেন কি না। স্পেশাল ফোর্সের অন্তত ১৬ সদস্যের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ রয়েছে। এ অবস্থায় চীনের টুইট নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় বেশ অস্বস্তি তৈরি হয়েছে। গতকাল প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেন, ‘ছবিটি পুরোপুরি জাল। অস্ট্রেলিয়ার সেনাদের নিয়ে এমন ছবি পোস্ট করা খুবই বিরক্তিকর।’ ছবিটি মুছে ফেলতে টুইটারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মরিসন।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘ছবি পোস্ট করার এই বিষয়টি খুবই লজ্জার এবং কোনো যুক্তি দিয়ে এ ধরনের কর্মকাণ্ড প্রতিষ্ঠা করার সুযোগ নেই। এ জন্য চীন সরকারের চরম লজ্জা হওয়া উচিত। এ ঘটনায় চীনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে।’

অস্ট্রেলিয়ার এই প্রতিক্রিয়ার জবাবে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আরেক মুখপাত্র হুয়া চুনাইং পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেছেন, ‘তাঁদের সেনারা এ ধরনের কাজ করে, এ জন্য অস্ট্রেলিয়া সরকারের লজ্জিত হওয়া উচিত নয়?’ তিনি বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া সরকারের উচিত আফগান সরকারের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করা। কারণ এটাই বাস্তবতা যে অস্ট্রেলিয়ার সেনারা নৃশংসভাবে আফগানিস্তানের নিরীহ জনগণকে হত্যা করেছে।’

আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি নভেম্বরের শুরুর দিকে বলেছেন, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী মরিসন ফোন করে এ ব্যাপারে তাঁর কাছে অনুশোচনা প্রকাশ করেছেন। সূত্র : বিবিসি, এএফপি।

মন্তব্য