kalerkantho

শুক্রবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৭ নভেম্বর ২০২০। ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

ফ্রান্সে গির্জায় ‘সন্ত্রাসী’ হামলা, নিহত ৩

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩০ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফ্রান্সের নিস শহরে নটর ডেম গির্জায় গতকাল বৃহস্পতিবার ছুরি হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে এক নারীসহ তিনজন মারা গেছেন। একজনের ‘প্রায় শিরশ্ছেদ’ করা হয়েছে। হামলার পরপরই সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে গুলি করা হয়েছে এবং তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শহরের মেয়র ক্রিশ্চিয়ান এসট্রসি এই হামলাকে ‘ইসলামী ফ্যাসিবাদ’ বলেছেন এবং বলেছেন, সন্দেহভাজন ব্যক্তি ‘বারবার আল্লাহু আকবর’ ধ্বনি দিচ্ছিলেন।

প্যারিসের একটি স্কুলে এক ইতিহাসের শিক্ষক খুন হওয়ার দুই সপ্তাহের ব্যবধানে গির্জায় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটল। শিক্ষক খুনের ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর এক বক্তব্যের পর বিভিন্ন মুসলিম দেশে ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভ চলছে। কোনো কোনো দেশে ফরাসি পণ্য বর্জনেরও ডাক দেওয়া হয়েছে।

গির্জায় হত্যাকাণ্ডের পর ম্যাখোঁ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। খুনের তদন্ত শুরু করেছেন ফ্রান্সের জাতীয় সন্ত্রাস দমনবিষয়ক কৌঁসুলি।

এসট্রসি এই হত্যাকাণ্ডকে শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি হত্যার সঙ্গে তুলনা করেছেন। তবে নিস শহরের হামলার ঘটনার উদ্দেশ্য সম্পর্কে পুলিশ এখনো পর্যন্ত কিছু বলেনি। পুলিশ বলছে স্থানীয় সময় সকাল ৯টার কিছু পর হামলার ঘটনা ঘটে।

গতকাল আরো দুটি হামলার ঘটনা ঘটেছে। একটি ফ্রান্সে এবং অন্যটি সৌদি আরবে। ফ্রান্সে আভিন্ন্যুয়ার কাছে মঁফাভেত শহরে পুলিশকে হ্যান্ডগান নিয়ে হুমকি দেওয়ার পর এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। আর জেদ্দায় ফরাসি দূতাবাসের বাইরে একজন রক্ষীর ওপর হামলা চালানো হয়েছে। সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং ওই রক্ষীকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

নিস শহরে নিহত তিনজনের মধ্যে দুজন গির্জার ভেতর মারা গেছেন। একজন বৃদ্ধ নারী এবং একজন পুরুষ। খবরে বলা হচ্ছে, ওই পুরুষকে গলা কাটা অবস্থায় পাওয়া গেছে। আরেকজন নারী ছুরিকাহত অবস্থায় কাছের একটি কফির দোকানে পালিয়ে যেতে পেরেছিলেন। তিনি পরে মারা গেছেন।

জানা গেছে, একজন প্রত্যক্ষদর্শী শহরে যে বিশেষ সুরক্ষাব্যবস্থা মোতায়েন করা হয়েছে, তার মাধ্যমে সতর্কতা সংকেত দিতে সমর্থ হন। সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা