kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

ভারতের বাতাস নোংরা : ট্রাম্প

ক্ষুব্ধ ভারতীয়রা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রম্পের মুখে নেতিবাচক দৃষ্টান্ত হিসেবে চীনের নাম প্রায়ই শোনা যায়। এবার তিনি মুখে আনলেন ‘বন্ধু রাষ্ট্র’ ভারতের নামও। গত বৃহস্পতিবার প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্কের সময় দূষিত বায়ুর শহর হিসেবে ভারতের নামও উল্লেখ করেন। 

কয়েক দিনের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে ভারত সফরে যাবেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার। এ অবস্থায় ট্রাম্পের এই মন্তব্য দুই দেশের কূটনীতিকদের বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে ফেলে দিয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই বিষয়টি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার চূড়ান্ত প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্কে অংশগ্রহণ করেন ট্রাম্প ও তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জো বাইডেন। বিতর্কে জলবায়ু ইস্যুতেও কথা বলেন দুই নেতা। এর মধ্যে ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রশংসা করতে গিয়ে বলেন, ‘চীনের বাতাসের দিকে তাকান, খুবই নোংরা। রাশিয়ার দিকে তাকান, ভারতের দিকে তাকান, সেখানকার বাতাসও খুবই নোংরা।’

এর আগে প্রথম বিতর্কের সময়ও ভারতের সমালোচনা করেন ট্রাম্প। ওই সময় তিনি করোনায় মৃত্যু কিংবা সংক্রমণ নিয়ে ভারত সরকারের বক্তব্যে সন্দেহ প্রকাশ করেন।

ট্রাম্পের এসব মন্তব্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ভারতীয়রা। অনেকেই মনে করেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উচিৎ হবে ট্রাম্পের এসব মন্তব্যের কঠোর জবাব দেওয়া।

কংগ্রেস নেতা কপিল সিবাল ফেসবুকে লিখেছেন, ‘ভারতের করোনা রোগী নিয়ে ট্রাম্প সন্দেহ করেছেন; ভারতের বাতাসকে নোংরা বলেছেন। এই হলো নরেন্দ্র মোদির বন্ধুত্বের ফল।’

ভারতের রাজনৈতিক বিশ্লেষক তেহসিন পুনাওয়ালা মনে করেন, প্রধানমন্ত্রী মোদির অবশ্যই ট্রাম্পের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানানো উচিৎ। তিনি বলেন, ‘আমাদের স্মরণ রাখা উচিৎ, ইন্দিরা গান্ধী কিভাবে হেনরি কিসিঞ্জার ও রিচার্ড নিক্সনকে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন।’

শিব সেনার নেতা প্রিয়াঙ্কা চতুরবেদি বলেছেন, ‘ট্রাম্পের মনে রাখা উচিৎ যে ভারত জলবায়ু পরিবর্তনে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। আর যুক্তরাষ্ট্র প্যারিস চুক্তি থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছে।’

ট্রাম্পের মন্তব্যের সমালোচনা করেছে চীনও। গতকাল দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘বেইজিং প্রত্যাশা করে যে যুক্তরাষ্ট্র তাদের নির্বাচনী প্রচারপ্রচারণায় চীনের নাম ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবে।’ সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা