kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ কার্তিক ১৪২৭। ২৭ অক্টোবর ২০২০। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সংঘাত

ট্রাম্প-পুতিন-ম্যাখোঁর অস্ত্রবিরতির আহ্বান

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের সংঘাত বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া ও ফ্রান্স। গতকাল বৃহস্পতিবার ওই তিন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের এক যৌথ বিবৃতিতে এই আহ্বান জানানো হয়। তবে তাতে কাজ হয়নি, বরং পাওয়া গেছে দীর্ঘমেয়াদি যুদ্ধের আভাস।

নাগর্নো-কারাবাখ অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের দীর্ঘদিনের তিক্ততা গত রবিবার তীব্র লড়াইয়ে রূপ নেয়। গত পাঁচ দিনের লড়াইয়ে এরই মধ্যে শতাধিক প্রাণহানি ঘটে। হতাহতের সংখ্যা ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিয়ে উভয় পক্ষের ভিন্ন ভিন্ন দাবি আছে।

আর্মেনিয়া ১০৪ সেনা সদস্য ও ২৩ বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ার খবর জানিয়েছে। তাদের দাবি, আজারবাইজানও ১৩০ সেনা হারিয়েছে এবং তাদের ২০০ সেনা আহত হয়েছে। আর আজারবাইজানের দাবি, তারা দুই হাজার ৩০০ কারাবাখ সেনাকে হত্যা করেছে। বিপুল পরিমাণ আর্মেনীয় সামরিক সরঞ্জাম ধ্বংস করার দাবিও করেছে তারা। লড়াই বন্ধে উভয় পক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়ে চলেছে আন্তর্জাতিক অঙ্গন। গত বুধবার রাশিয়া মধ্যস্থতা করার প্রস্তাবও দেয়। কিন্তু সেটা নাকচ করে দিয়েছে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান। ওই দিন পরে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ফোন করেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। ফোনালাপের পর গতকাল দুই রাষ্ট্রপ্রধান আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের প্রতি অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানান। পরে ফ্রান্সের এলিসি প্রাসাদের আরেক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টদের যৌথ আহ্বানের কথা জানানো হয়।

এলিসি প্রাসাদের ওই বিবৃতিতে সংঘাতে জড়িত সব পক্ষের প্রতি অবিলম্বে অস্ত্রবিরতির আহ্বান জানানো হয়। এ ছাড়া অবিলম্বে আলোচনা শুরু করতেও আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের নেতাদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। সূত্র : আলজাজিরা।

মন্তব্য