kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বিষ প্রয়োগ : পুতিনকে দোষারোপ নাভালনির

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিষ প্রয়োগ : পুতিনকে দোষারোপ নাভালনির

রাশিয়া সরকারের সমালোচক আলেক্সেই নাভালনি অভিযোগ করেছেন, তাঁর শরীরে বিষ প্রয়োগের ঘটনায় প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের হাত রয়েছে। সুস্থ হয়ে দেশ ফেরার ঘোষণাও দিয়েছেন ৪৪ বছর বয়সী নাভালনি। এদিকে নাভালনিকে পশ্চিমা গোয়েন্দাদের ‘গুপ্তচর’ আখ্যা দিয়ে রাশিয়া বলেছে, পুতিনের কারণেই তিনি প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন।

গত আগস্টে বিমানে থাকা অবস্থায় হঠাৎ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলনের মাধ্যমে আলোচনায় আসা নাভালনি। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে জার্মানিতে নেওয়া হয়। এখন তিনি জার্মানিতেই আছেন এবং অনেকটাই সুস্থ। জার্মানির চিকিৎসকরা দাবি করেছেন, নাভালনির শরীরে নভিচক নামের নার্ভ এজেন্ট (এক ধরনের বিষাক্ত রাসায়নিক) প্রয়োগ করা হয়েছিল।

অসুস্থ হওয়ার পর গত বুধবার প্রথমবারের মতো গণমাধ্যমে কথা বলেন নাভালনি। তিনি বলেন, ‘আমি দেশে ফিরে না যাওয়ার অর্থ হলো, পুতিন জিতে গেলেন। দেশে না ফিরে আমি পুতিনকে এই জয় উপহার দিতে চাই না। আমি দেশে ফিরব এবং তাদের সঙ্গেই থাকব, যারা ভয় পায় না।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমার ওপর হামলার পেছনে পুতিনের হাত রয়েছে। এর বাইরে আমার কাছে আর কোনো ব্যাখ্যা নেই।’ তাঁর যুক্তি, রাশিয়ার শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তারাই শুধু নভিচক ব্যবহারের অনুমতি দিতে পারেন।

নাভালনি বলেন, ‘রাশিয়ায় ফিরে আমি আবার শহরে শহরে ঘুরে বেড়াব, হোটেলে থাকব, হোটেলকক্ষে থাকা পানি পান করব। এ ছাড়া আমি আর কী করতে পারি! পুতিনের অনুগত খুনিদের মোকাবেলা করা আমার মতো একজনের পক্ষে সম্ভব নয়।’

জার্মান চিকিৎসকদের সঙ্গে একমত পোষণ করেছে ফ্রান্স ও সুইডেন। জার্মান সরকার সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, এ ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হলে রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রয়োগ করা হতে পারে।

বিষ প্রয়োগ কিংবা ঘটনায় সম্পৃক্ততার অভিযোগ শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছে রাশিয়া। বরং রাশিয়ার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের প্রধান ভিয়াচেসলাভ ভোলোদিন দাবি করেছেন, পুতিনের কারণেই নাভালনি প্রাণে বেঁচে গেছেন। নাভালনির অভিযোগ অস্বীকার করে ভোলোদিন এক বিবৃতিতে বলেন, তাঁর কোনো ব্যক্তিত্ব নেই এবং তিনি একজন অসৎ মানুষ। প্রেসিডেন্ট পুতিনের পাইলট থেকে চিকিৎসক—প্রত্যেকেই নাভালনির জীবন বাঁচানোর ব্যাপারে আন্তরিক ছিলেন। সূত্র : এএফপি।      

মন্তব্য