kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

নিহত ১০০

আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সংঘাত বাড়ছে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সংঘাত বাড়ছে

নাগর্নো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে নতুন করে শুরু হওয়া সংঘাত গতকাল মঙ্গলবার তৃতীয় দিনে গড়িয়েছে। উভয় পক্ষই সংঘাতে প্রতিপক্ষের বড় ধরনের ক্ষতিসাধনের দাবি করেছে।

এ অবস্থায় গতকাল এই ইস্যুতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠক হওয়ার কথা ছিল।

গত রবিবার আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যকার সংঘর্ষ অবিলম্বে বন্ধের আহ্বান জানান জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। এ ছাড়া অস্ত্রবিরতির আহ্বান জানিয়েছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মহল। তবে উভয় পক্ষই লড়াই অব্যাহত রেখেছে। নতুন করে সংঘাত শুরুর জন্য আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান পরস্পরকে দোষারোপ করেছে।

দুই দেশের সীমান্তে গতকালও ব্যাপক সংঘর্ষ ও গোলাগুলির খবর পাওয়া গেছে। এখন পর্যন্ত সংঘর্ষে অন্তত ১০০ জনের নিহত হওয়ার তথ্য পাওয়া যাচ্ছে।

আর্মেনিয়ার দাবি, এ পর্যন্ত আর্মেনীয় সেনারা আজারবাইজানের হামলার জবাবে তাদের ৫০টি ড্রোন, চারটি হেলিকপ্টার ও ৮০টি ট্যাংক ধ্বংস করেছে। অন্যদিকে আজারবাইজানের দাবি, সীমান্তে শত্রুদের হটিয়ে দিয়েছে তাদের সেনাবাহিনী।

নাগর্নো-কারাবাখ নিয়ে খ্রিস্টান আর্মেনিয়া ও মুসলমান সংখ্যাগরিষ্ঠ আজারবাইজানের মধ্যে অনেক বছর ধরে তিক্ত সম্পর্ক বিদ্যমান। দুই দেশের সীমান্তে গত রবিবার ইয়েরেভান ও বকু বাহিনীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ-গোলাগুলির পর পরিস্থিতি যুদ্ধাবস্থায় রূপ নেয়।

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নে সামরিক জোটের অংশ ছিল ইয়েরেভান। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এই সংঘাত বন্ধে আহ্বান জানিয়েছেন। অন্যদিকে আজারবাইজানকে সমর্থন দিচ্ছে তুরস্ক। দেশটির বিরুদ্ধে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল দিয়ে বকুতে ভাড়াটে গুণ্ডা পাঠানোর অভিযোগ আছে। তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান বলেছেন, দীর্ঘদিনের অমীমাংসিত কারাবাখ ইস্যু ‘সমাধানের সময়’ এসেছে। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা