kalerkantho

রবিবার । ৯ কার্তিক ১৪২৭। ২৫ অক্টোবর ২০২০। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

থাইল্যান্ডে বিক্ষোভ

রাজতন্ত্রবিরোধী ফলকটি উধাও

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের মালিক জনগণ, রাজা নয়—এমন ঘোষণাসংবলিত একটি ফলক গত শনিবার স্থাপন করে থাইল্যান্ডের বিক্ষোভকারীরা। গতকাল সোমবার রাজধানী ব্যাংককে গ্র্যান্ড প্যালেসের পাশের ময়দানে বসানো এই ফলকটি আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। রাজতন্ত্রের সমালোচনা করে বিক্ষোভকারীদের নেওয়া সবচেয়ে সাহসী পদক্ষেপ ছিল এটি।

প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুত চান-ও-চার পদত্যাগ এবং রাজতন্ত্রের সংস্কারের দাবিতে দুই মাস ধরে উত্তাল ব্যাংকক। সরকার পতনের দাবিতে চলমান ওই আন্দোলনের সামনের সারিতে আছে থাইল্যান্ডের শিক্ষার্থী ও তরুণ জনগোষ্ঠী। প্রায়ুত চান-ও-চা ২০১৪ সালের অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, তারা ফলক খোয়া যাওয়া নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। তবে ব্যাংকক পুলিশের উপপ্রধান পিয়া তাওচাই সতর্ক করে বলেন, এই ফলক বসানোর জন্য তাঁরা বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে পারেন।

গত শনিবার ফলক বসানোর ওই বিক্ষোভে গত ছয় বছরের মধ্যে অর্থাৎ ২০১৪ সালে ও-চা ক্ষমতায় আসার পর থেকে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক মানুষ অংশ নেয়। এই সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়াবে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। গত রবিবারও বিপুলসংখ্যক মানুষ বিক্ষোভ করে। থাইল্যান্ডে আগেও ফলক স্থাপনের ঘটনা ঘটেছে। দেশটিতে ১৯৩২ সালে রাজতন্ত্রের একাধিপত্য খর্ব হওয়ার স্মৃতি ধরে রাখতে ব্যাংককের রয়াল প্লাজা প্রাঙ্গণে স্থাপন করা হয় সেই ফলক। বর্তমান থাই রাজা মহা ভাজিরালংকর্ন ২০১৭ সালে সিংহাসনে আরোহণ করার পর ওই ফলক রহস্যজনকভাবে উধাও হয়ে যায়। এর পরিবর্তে বসিয়ে দেওয়া হয় এমন এক ফলক, যাতে রাজপরিবারের প্রতি জনগণকে অনুগত থাকার আহ্বান জানানো হয়। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা