kalerkantho

বুধবার । ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১২ সফর ১৪৪২

যেকোনো সময় ঘুরে দাঁড়াব : টেড্রোস

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যেকোনো সময় ঘুরে দাঁড়াব : টেড্রোস

ইউরোপের দেশে দেশে নতুন করে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পরও এসব দেশের কর্তৃপক্ষ আত্মতুষ্টিতে ভুগছে বলে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। স্পেন, ফ্রান্স, জার্মানিসহ কিছু দেশে আবার ব্যাপকহারে সংক্রমণ শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। এদিকে নিউজিল্যান্ডে ১০২ দিন পর নতুন রোগী মেলায় নির্বাচন পেছানোর দাবি জানিয়েছেন দেশটির বিরোধী নেতা।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে এরই মধ্যে দুই কোটিরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। প্রাণ হারিয়েছে প্রায় সাড়ে সাত লাখ। এই পরিস্থিতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম গেব্রিয়েসাস বলেছেন, ‘এই পরিসংখ্যানের আড়ালে দীর্ঘ যন্ত্রণা আর কষ্ট আছে। তবে আশার ক্ষীণ রেখাও স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি। যেকোনো সময়েই এর বিরুদ্ধে আমরা ঘুরে দাঁড়াব।’

লকডাউন শিথিল করার পর ইউরোপের কিছু দেশে নতুন করে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। লকডাউন যেভাবে অর্থনীতির ক্ষতি করছিল, তার কারণে বিভিন্ন দেশের সরকার এই লকডাউন শিথিল করতে উদ্গ্রীব ছিলেন। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে ফরাসি প্রধানমন্ত্রী ইমানুয়েল ম্যাখোঁ বলেছেন, দুই সপ্তাহ ধরে তাঁর দেশ ‘ভুল পথে’ যাচ্ছে। মঙ্গলবার ফ্রান্সে এক হাজার ৩৯৭ জনের সংক্রমণ ধরা পড়েছে বলে জানিয়েছে সেখানকার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এদিকে জার্মানিতে গতকাল এক হাজার ২২৬ জনের সংক্রমণ ধরা পড়ার পর সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা এখন দুই লাখ ১৮ হাজার ৫১৯ জন। স্পেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানাচ্ছে, সেখানে নতুন করে তিন হাজার ৬৩২ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ার পর মোট আক্রান্ত এখন তিন লাখ ২৬ হাজার। অন্যদিকে করোনাভাইরাসের কারণে চীন অন্যান্য দেশের নাগরিকদের সে দেশে যাওয়ার ওপর যে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছিল, তা শিথিল করেছে। ইউরোপের ৩৬টি দেশের নাগরিকরা এখন চীনে যাওয়ার জন্য ভিসার আবেদন করতে পারবেন। গত মার্চে চীন বিশ্বের প্রায় সব দেশের নাগরিকদের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এমনকি যাদের বৈধ রেসিডেন্ট বা বিজনেস ভিসা আছে, তাদের ওপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এর আগে থেকেই চীন আন্তর্জাতিক ফ্লাইট কমিয়ে দিয়েছিল। এখন কিছু ফ্লাইট আবার চালু করতে দেওয়া হচ্ছে। সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা