kalerkantho

সোমবার । ১৩ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১০ সফর ১৪৪২

হংকংয়ে ধরপাকড় অব্যাহত

পত্রিকা কিনে প্রতিবাদ সরকারের বিরুদ্ধে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১২ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পত্রিকা কিনে প্রতিবাদ সরকারের বিরুদ্ধে

হংকংয়ে বিতর্কিত জাতীয় নিরাপত্তা আইন অনুযায়ী সরকারবিরোধী যেকোনো কর্মকাণ্ড গুরুতর অপরাধের শামিল। ফলে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানাতে, এমনকি ফেসবুক পোস্ট দিতে গিয়েও সাবধান থাকছে স্থানীয়রা। তাই বলে পছন্দের পত্রিকা কিনতে তো আর বাধা নেই। সে জন্য এবার সরকারবিরোধী পত্রিকা কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়েছে হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থী মানুষ।

চীনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল হংকংয়ের অ্যাপল ডেইলি শীর্ষক গণতন্ত্রপন্থী পত্রিকার মালিক জিমি লাই ও তাঁর দুই ছেলেকে গত সোমবার গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে লাইন দিয়ে ওই পত্রিকা কিনছে হংকংয়ের লোকজন। গত সোমবার জাতীয় নিরাপত্তা আইনবলে গ্রেপ্তার ১০ জনের মধ্যে রয়েছেন লাই ও তাঁর দুই ছেলে।

হংকংয়ের মিডিয়া মোগল লাইকে গত সোমবার হাতকড়া পরিয়ে অ্যাপল ডেইলির কার্যালয়ে অভিযান চালান প্রায় ২০০ পুলিশ সদস্য, নিয়ে যান অনেক নথিপত্র। পত্রিকার কর্মীরা এসব ভিডিও করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছেন।

লাইয়ের গ্রেপ্তারের খবর চাউর হওয়ার পর অ্যাপল ডেইলির বিক্রি বেড়ে গেছে অপ্রত্যাশিত হারে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, পত্রিকাটির প্রচারসংখ্যা সাধারণত ৭০ হাজারে সীমাবদ্ধ থাকলেও গত মঙ্গলবার ব্যাপক চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে কর্তৃপক্ষ সাড়ে পাঁচ লাখ কপি পত্রিকা ছেপেছে। যারা পত্রিকাটি কিনছে তাদের একটাই বক্তব্য, অ্যাপল ডেইলিকে তারা টিকিয়ে রাখবেই।

গতকাল হংকংয়ের এক রেস্টুরেন্ট মালিক ৫০ কপি অ্যাপল ডেইলি কিনেছেন। এগুলো তিনি বিনা পয়সায় বিলাবেন বলে জানিয়েছেন। পত্রিকা কিনতে লাইন দিয়ে দাঁড়ানো লোকজনের মধ্যে একজন বলেন, ‘সরকার যেহেতু অ্যাপল ডেইলিকে টিকতে দিতে চায় না, তাই হংকংবাসীর নিজেদেরই এটাকে রক্ষা করতে হবে।’ লাইয়ের গ্রেপ্তারের পর তাত্ক্ষণিক অস্বাভাবিক প্রভাব পড়েছে শেয়ারবাজারেও। পত্রিকাটির শেয়ারের দাম এক লাফে এক হাজার ১০০ শতাংশ বেড়ে গেছে।

জনতার সমর্থন পাওয়া অ্যাপল ডেইলি নিজেও সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ঘোষণা দিয়েছে। পত্রিকাটি গতকালের সংখ্যার প্রথম পাতায় লাইয়ের হাতকড়া পরা ছবি ছাপিয়ে শিরোনামে ঘোষণা দিয়েছে, ‘অ্যাপল লড়াই চালিয়ে যাবে।’ এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে আইনি লড়াইয়ের প্রস্তুতি। পত্রিকার চিফ এডিটর লাও ওয়াই কাওং গতকাল জানান, পুলিশ পত্রিকা অফিস থেকে যেসব নথিপত্র নিয়ে গেছে, সেগুলো যেন তারা খতিয়ে দেখতে না পারে, এ জন্য আইনের দ্বারস্থ হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে অ্যাপল ডেইলি কর্তৃপক্ষ। কাওং বলেন, ‘আমাদেরকে অবশ্যই ওগুলো রক্ষা করতে হবে।’

১৯৯৭ সালের ১ জুলাই হংকংয়ের ভার চীনের কাছে হস্তান্তর করে ব্রিটেন। এর পরবর্তী কমপক্ষে ৫০ বছর হংকংকে স্বাধীনতা দেওয়ার চুক্তি হলেও মাত্র ২৩ বছরের মাথায় তা ক্ষুণ্ন করেছে চীন। গত ১ জুলাই থেকে হংকংয়ে কার্যকর করা হয়েছে জাতীয় নিরাপত্তা আইন। চীন সরকারের আরোপিত ওই আইন হংকংবাসীর স্বাধীনতা ক্ষুণ্ন করেছে—এমন অভিযোগে এরই মধ্যে পশ্চিমের বিভিন্ন দেশ চীনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞামূলক পদক্ষেপ নিয়েছে। তবে তাতে চীন দমে নেই। নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নামে বিতর্কিত ওই আইনবলে অব্যাহত রয়েছে ধরপাকড়। এরই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার গ্রেপ্তার ১০ জনের মধ্যে রয়েছেন হংকংয়ের মিডিয়া মোগলখ্যাত লাই। প্রতিবাদে গতকাল লাইন দিয়ে অ্যাপল ডেইলি কিনতে শুরু করে স্থানীয়রা। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা