kalerkantho

সোমবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৩ সফর ১৪৪২

শান্তির আরো কাছে আফগানিস্তান!

৪০০ তালেবান বন্দি মুক্তির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১০ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আফগানিস্তানে ‘লয়া জিরগা’ শীর্ষক মহাসম্মেলনে অবশিষ্ট ৪০০ তালেবান বন্দির মুক্তির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে। তিন দিনের সম্মেলনের শেষ দিন গতকাল রবিবার এসংক্রান্ত প্রস্তাব পাস হয়। এর মধ্য দিয়ে সরকার-তালেবান সরাসরি আলোচনা শুরুর পথে শেষ বাধাও দূর হয়ে গেল।

মধ্যপ্রাচ্যের গৃহযুদ্ধকবলিত দেশটির বিভিন্ন গোষ্ঠীর তিন হাজারের বেশি প্রতিনিধির অংশগ্রহণে গত শুক্রবার থেকে শুরু হয় ঐতিহাসিক লয়া জিরগা। সম্মেলনে শেষ দিন তারা ৪০০ তালেবান বন্দির মুক্তির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করে।

লয়া জিরগার সদস্য আতেফা তায়েব ঘোষণা দেন, ‘শান্তি আলোচনা শুরুর বাধা দূর করতে, রক্তপাত বন্ধ করতে এবং জনতার মঙ্গলের স্বার্থে তালেবানের দাবি অনুযায়ী ৪০০ বন্দির মুক্তির অনুমোদন দিয়েছে জিরগা।’

গতকালই তালেবান বন্দিদের মুক্তিসংক্রান্ত আদেশে প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির সই করার কথা। তিনি নিজে এ তথ্য জানিয়ে গতকাল বলেন, ‘এখন তালেবানের প্রমাণ করা উচিত, দেশজুড়ে অস্ত্রবিরতি কার্যকর করতে তারা ভয় পায় না।’

লয়া জিরগায় সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই বলেন, ‘আমি যে তথ্য পেয়েছি, সে অনুসারে ৪০০ তালেবান বন্দির মুক্তির দুই-তিন দিনের মধ্যেই আন্ত আফগান আলোচনা শুরু হবে।’

সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধের নামে ২০০১ সালের অক্টোবরে আফগানিস্তানে অনুপ্রবেশ করে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সেনাবাহিনী। ১৯ বছর ধরে চলা সেই যুদ্ধের ইতি টানতে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি তালেবানের সঙ্গে চুক্তি করে যুক্তরাষ্ট্র। চুক্তি অনুযায়ী এরই মধ্যে আফগানিস্তানে মার্কিন সেনার সংখ্যা আট হাজার ৬০০ জনে নামিয়ে আনা হয়েছে। আগামী নভেম্বরের মধ্যে ওই সংখ্যা পাঁচ হাজারের নিচে নামিয়ে আনা হবে। গত শনিবার ফক্স নিউজকে এমনটাই জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার।

আফগানিস্তান থেকে ধাপে ধাপে বিদেশি সেনা সরিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি চুক্তি অনুযায়ী আফগান সরকার ও তালেবানের মধ্যে সরাসরি আলোচনা শুরুর ওপরও জোর দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। চুক্তি অনুযায়ী তালেবান সরকারপক্ষের সব বন্দিকে মুক্তি দিয়েছে। সরকারও পাঁচ হাজার তালেবান বন্দিকে মুক্তি দিয়েছে। তবে এখনো কারাবন্দি ৪০০ বিতর্কিত তালেবান। তাদের মধ্যে দেড় শ বন্দি মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত। তাদের মুক্তির বিষয়ে সরকার এককভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরিবর্তে লয়া জিরগা আহ্বান করে। এই সম্মেলনে গতকাল অবশিষ্ট তালেবান বন্দিকে মুক্তি দেওয়ার ব্যাপারে ঐকমত্য হয়। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা