kalerkantho

শনিবার । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭। ৮ আগস্ট  ২০২০। ১৭ জিলহজ ১৪৪১

করোনাযোদ্ধাদের শ্রদ্ধায় বাস্তিল দিবসের আয়োজন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনাযোদ্ধাদের শ্রদ্ধায় বাস্তিল দিবসের আয়োজন

ফ্রান্সে গতকাল বাস্তিল দিবসের প্যারেডে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। ছবি : এএফপি

এ বছর বাস্তিল দিবসে জমকালো সামরিক কুচকাওয়াজ আর বর্ণিল আয়োজন থেকে সরে এসেছে ফ্রান্স সরকার। এর পরিবর্তে করোনাযোদ্ধাদের সম্মান জানানোর আয়োজন করা হয়েছে। মহামারি মোকাবেলা করতে গিয়ে যারা মারা গেছে এবং যারা এখনো লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে, তাদের সবার প্রতি সম্মান জানাতে ফ্রান্স সরকারের এবারের আয়োজন।

১৭৮৯ সালের ১৪ জুলাই বাস্তিল কারাগারে বৈপ্লবিক অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে ফরাসি বিপ্লবের শুরু, এমনটা ধরে নিয়ে প্রতিবছর এই দিনে পালন করা হয় বাস্তিল দিবস, যেটা ফ্রান্সের জাতীয় দিবসও বটে। এই দিবসে রাজধানী প্যারিসে সামরিক কুচকাওয়াজ বাদ পড়ার ঘটনা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর কখনো ঘটেনি। কিন্তু এ বছর পরিস্থিতি একেবারেই ভিন্ন। করোনাভাইরাস মহামারি গোটা বিশ্বকে গ্রাস করায় ভিন্নভাবে বাস্তিল দিবস পালন করছে ফ্রান্স।

স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার জাঁকজমকপূর্ণ সামরিক প্রদর্শনী বাদ দিয়ে রাখা হয় শুধু বিমানবাহিনীর প্রদর্শনী। এ ছাড়া যেসব বিমান করোনা মোকাবেলায় ব্যবহৃত হয়েছে, সেগুলোর প্রদর্শনীও ছিল।

আর করোনা মোকাবেলা করতে গিয়ে ফ্রান্সে যে স্বাস্থ্যকর্মীরা প্রাণ দিয়েছেন, তাঁদের পরিবারের প্রায় আড়াই হাজার সদস্যকে বিশেষ আমন্ত্রণ জানানো হয় এবং জীবিত-মৃত সব করোনাযোদ্ধার প্রতি সম্মান প্রদর্শনের আয়োজন করা হয়। এই লক্ষ্যে প্রায় দুই হাজার সেনাসদস্যকে এলিসি প্রাসাদে উপস্থিতি করা হয়।

বাস্তিল দিবসের আয়োজন সাধারণত জনগণের জন্য উন্মুক্ত থাকলেও এবার জনসমাগম ঠেকাতে রাজধানীর বেশ কিছু জায়গা অবরুদ্ধ রাখা হয়। তবে সব আয়োজন টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয়।

এলিসি প্রাসাদের আয়োজনের পাশাপাশি স্থানীয় সময় গতকাল রাত ১১টায় আইফেল টাওয়ারের কাছে আতশবাজির প্রদর্শনী হওয়ার কথা। নগর কর্তৃপক্ষ জানায়, করোনাকালে নগরবাসী ও গোটা জাতির সহনশীলতার প্রতীক হিসেবে এবং মহামারি মোকাবেলায় অংশগ্রহণকারী সবার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এ আয়োজন করা হয়েছে।

এ ছাড়া এলিসি প্রাসাদে গতকালের সকালের আয়োজন শেষে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর টেলিভিশনে সাক্ষাৎকার দেওয়ার কথা।

সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা