kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৪ আগস্ট ২০২০ । ২৩ জিলহজ ১৪৪১

ইসলামাবাদের প্রথম মন্দিরের নির্মাণকাজ স্থগিত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে কট্টরপন্থীদের বাধার মুখে হিন্দু মন্দিরের নির্মাণকাজ স্থগিত করা হয়েছে। পাকিস্তানের স্বাধীনতা অর্জনের পর এই প্রথম কোনো মন্দিরের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছিল। তবে কট্টরপন্থীরা বিষয়টি নিয়ে আদালতের দারস্থ হলে আদালত নির্মাণের ওপর স্থগিতাদেশ জারি করেন।

মোট এক হাজার ৮৬০ বর্গ কিলোমিটার জায়গার ওপর মন্দির নির্মাণের পরিকল্পনা করে পাকিস্তান সরকার। এর সঙ্গে একটি শ্মশান এবং একটি কমিউনিটি হল নির্মাণের পরিকল্পনাও রয়েছে। এই মন্দির প্রকল্পের জন্য ইমরান খান সরকার এরই মধ্যে পাঁচ লাখ পাউন্ড বরাদ্দ দিয়েছে।  প্রায় ৮০ লাখ হিন্দু মুসলিমপ্রধান এই দেশটিতে বাস করে। তবে লাশ সৎকার বা প্রার্থনার জন্য রাজধানী শহরে সুনির্দিষ্ট কোনো স্থান ছিল না। হিন্দুরা দীর্ঘদিন ধরেই একটি শ্মশানের দাবি করে আসছে। এই প্রকল্পটি ২০১৭ সালে নওয়াজ শরিফ সরকারের আমলেই গৃহীত হয়। তবে নানা গড়িমসি করে তারা প্রকল্পের বাস্তবায়ন পিছিয়ে দেয়। গত সপ্তাহে এর নির্মাণকাজে হাত দেয় সরকার। মন্দিরের চারপাশের দেয়াল নির্মাণের কাজ শুরু করার পরপরই এ নিয়ে হাইকোর্টের দারস্থ হয় কট্টরপন্থীরা। ক্ষমতাসীনদের জোট সহযোগী পাকিস্তান মুসলিম লীগ—কায়েদ পার্টি মনে করে, মন্দির নির্মাণ ‘ইসলামের মতাদর্শ বিরোধী’। একই দাবি করে লাহোরভিত্তিক ইসলামী প্রতিষ্ঠান জামিয়া আশরাফিয়া। তারা মনে করে, ইসলাম এমন কাজের অনুমোদন দেয় না। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানান, বিষয়টি নিয়ে তাঁরা শরিয়াহ বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছেন। তাঁদের পরামর্শের ভিত্তিতেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সূত্র : গার্ডিয়ান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা