kalerkantho

রবিবার । ২৮ আষাঢ় ১৪২৭। ১২ জুলাই ২০২০। ২০ জিলকদ ১৪৪১

ভারতে এপ্রিলেই বেকার হয়েছে সোয়া বারো কোটি মানুষ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩০ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতে করোনাভাইরাস লকডাউনের মধ্যে দেশের ১২ কোটিরও বেশি মানুষ চাকরি বা কাজকর্ম হারিয়েছেন বলে একটি জরিপে বলা হচ্ছে। দেশের প্রথম সারির থিংকট্যাংক ‘সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি’র গবেষণা জানাচ্ছে, শুধু গত মাসেই ভারতে ১২ কোটি ২০ লাখ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে, যার বেশির ভাগই ছিল দিনমজুর কিংবা ছোটখাটো ব্যবসায় কর্মরত শ্রমিক।

অর্থনীতিবিদরাও সতর্ক করে দিচ্ছেন, এই কর্মহীন মানুষের সংখ্যা দিন দিন আরো বাড়বে এবং শুধু শহরে নয়, এর মারাত্মক প্রভাব পড়তে চলেছে ভারতের গ্রামীণ অর্থনীতিতেও। দুই মাস আগে ভারতজুড়ে যখন আচমকা লকডাউন জারি করা হয়েছিল, মাত্র চার ঘণ্টার নোটিশে কার্যত থেমে গিয়েছিল অর্থনীতির চাকা। আবাসনশিল্পে কর্মরত লাখ লাখ শ্রমিক, রাস্তার পাশে ছোটখাটো দোকানের কর্মী, ঠেলাওয়ালা বা রিকশাওয়ালা—সবার রুটিরুজি বন্ধ হয়ে গিয়েছিল রাতারাতি।

ভারতের নামি গবেষণাপ্রতিষ্ঠান ‘সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি’ বা সিএমআইইর জরিপ বলছে, এপ্রিলের শেষেই দেশে এ ধরনের কাজ হারানো লোকের সংখ্যা গিয়ে ঠেকেছে প্রায় সোয়া ১২ কোটিতে। সিএমআইইর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মহেশ ব্যাস বলছিলেন, ‘এই যে ১২ কোটি ২০ লাখ মানুষের হাতে কাজ নেই—এদের একটা বিরাট অংশ, অন্তত ৯ কোটি ১০ লাখ মানুষের আজ কাজ না থাকলে পরের দিনের ভাত জোটে না। ফলে দেশের জনসংখ্যার একটা বিশাল অংশ এখন চরম দারিদ্র আর অনাহারের সম্মুখীন। সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা