kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৪ জুন ২০২০। ১১ শাওয়াল ১৪৪১

একজন থেকে ৪০৬ জনে!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৯ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



একজন থেকে ৪০৬ জনে!

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আটকাতে সামাজিক দূরত্বই একমাত্র দাওয়াই। চিকিৎসক থেকে বিজ্ঞানী, প্রশাসন থেকে বিশেষজ্ঞ—সবাই বারবার এ কথা বলছেন। কেন বলছেন, এর গুরুত্ব বোঝা গেল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের একটি সমীক্ষার হিসাবে। কোনো রকম সামাজিক দূরত্ব না থাকলে মাত্র একজন করোনা আক্রান্ত রোগী থেকে এক মাসে সংক্রমণ হতে পারে ৪০৬ জনের। আর সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখলে সেটাই নেমে আসতে পারে মাত্র ২.৫-এ। প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার রুটিন সাংবাদিক বৈঠকে দেশের করোনা সংক্রমণের পরিস্থিতি জানান কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব লব আগরওয়াল। সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষা থেকে তিনি বলেন, ‘নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’ কোনো রোগ সংক্রামক কি না তা নির্ধারণের একক হলো ‘আর-জিরো’ বা ‘আর-নট’। লব আগরওয়াল জানান, একটি গবেষণায় উঠে এসেছে, এই এককের হিসাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার ১ থেকে ৪-এর মধ্যে। ওই গবেষণায় বলা হয়েছে, এই হার ২.৫। অর্থাৎ একজনের থেকে গড়ে আড়াইজনের মধ্যে সংক্রমিত হতে পারে এই ভাইরাস। লব আগরওয়াল জানান, এই তথ্যের ওপর ভিত্তি করে গবেষকরা দেখেছেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি যদি আইসোলেশন বা কোয়ারেন্টিনে না থাকেন এবং সব স্বাভাবিক কাজকর্ম করতে থাকেন, তাহলে তাঁর থেকে মাত্র এক মাসের মধ্যেই ৪০৬ জন সংক্রমিত হতে পারে। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা