kalerkantho

রবিবার । ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩১  মে ২০২০। ৭ শাওয়াল ১৪৪১

ট্রাম্পের বক্তব্যে সুইডেন ক্ষিপ্ত!

সাব্বির খান, সুইডেন থেকে   

৯ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ বিষয়ে এক বক্তব্যে বলেন, ‘সুইডেন রাতের আঁধারে মারাত্মকভাবে ভুগছে’! তাঁর এই বক্তব্যের পরে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখায় সুইডেন। গত মঙ্গলবার রাতে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সারা বিশ্বের ‘সামাজিক দূরত্ব’ চর্চাকারী দেশগুলোর বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে জবাবে তিনি তাঁর স্বভাবসুলভ তীর্যক সমালোচনার তীর ছুড়ে দেন সুইডেনের দিকে। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরির জন্য সুইডেন সারা বিশ্বের বিপরীত ধারার কৌশল অবলম্বন করছে বলে তিনি দাবি করেন। ‘সামাজিক দূরত্বের’ বিধান মানছে না সুইডেন। নিজ দেশের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “আমেরিকা যদি ‘সামাজিক দূরত্ব’ ব্যবস্থা কার্যকর না করত তাহলে আজ হয়তো কয়েক লাখ মানুষ মারা যেত। বিশ্বের এই দুর্যোগে সবাই সবার দিকে তাকিয়ে আছে এবং অনুসরণ করছে। কিন্তু সুইডেন করছে না।”

ট্রাম্পের বক্তব্য কড়া ভাষায় প্রত্যাখ্যান করে সুইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আন লিন্দে বলেন, ট্রাম্পের বক্তব্য অজ্ঞতাপ্রসূত। তিনি বলেন, জীবদেহে ইমিউনিটি তৈরির কোনো কৌশলই সুইডেন অবলম্বন করছে না। সংক্রমণ প্রতিরোধের বেশ কিছু পদক্ষেপ সুইডেন সরকার গ্রহণ করেছে, তবে অন্যান্য দেশের মতো লকডাউন দেয়নি। এই বিষয়গুলো যাঁরা বোঝেন না বা জানেন না, তাঁরাই মূলত সুইডেনের ব্যাপারে নেতিবাচক কথা বলছেন, যা অবশ্যই সুইডেনের জন্য ক্ষতিকর।

সুইডেনে এ পর্যন্ত সাত হাজার ৭০০ মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে প্রায় ৬০০ জন। সুইডেনের প্রধান সংক্রামক ব্যাধি বিশেষজ্ঞ আন্দ্রেস তেগনেল ডোনাল্ড ট্রাম্পের বক্তব্যের কঠোর জবাব দিয়ে বলেন, ‘সারা বিশ্বের মতো সুইডেনও কভিড-১৯-এ মারাত্মকভাবে জর্জরিত। তবে আশা করি নিউ ইয়র্কে সুইডেনের মতো এতটা কঠিন অবস্থা বিরাজ করছে না।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা