kalerkantho

সোমবার । ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ১  জুন ২০২০। ৮ শাওয়াল ১৪৪১

শ্রমিকদের বাড়ি ফেরার বিষয়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

করোনার চেয়ে বড় সমস্যা ‘আতঙ্ক’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩১ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভয় আর আতঙ্ক, ভাইরাস সংক্রমণের চেয়েও এখন বড় সমস্যা। গতকাল সোমবার এমনটাই বললেন ভারতের প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদে। ভারতজুড়ে লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন রাজ্যের অভিবাসী শ্রমিকরা দলে দলে গ্রামে ফেরা শুরু করেছেন। পরিবহন না পেয়ে হেঁটেই ১০০ কিমি, ২০০ কিমি পাড়ি দিচ্ছেন তাঁরা। লকডাউন পরিস্থিতির মধ্যে লাখ লাখ অভিবাসী শ্রমিকের ঘরে ফেরার মরিয়া চেষ্টাকে ঘিরে এক অবর্ণনীয় ও চরম অমানবিক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এই অসহায় শ্রমিকদের সুরাহা দিতে আদালতে জনস্বার্থে দুটি আবেদন পড়ে। গতকাল সেই দুটি মামলার শুনানিতেই এমন মন্তব্য করেন প্রধান বিচারপতি।

আবেদনকারীদের উদ্দেশে প্রধান বিচারপতি বোবদের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ আরো বলেন, ‘আমরা এমন জিনিসে এখনই মধ্যস্থতা করব না, যেটা সরকার এরই মধ্যে তদারকি করছে। আপনাদের আবেদনে প্রার্থনা আছে। কিন্তু সেই বিষয়ে এরই মধ্যে ঢুকে পড়েছে সরকার।’

জানা গেছে, গতকাল সোমবার দুপুর ১২টা অবধি পাওয়া হিসাব মতে, দেশে সংক্রমণের সংখ্যা এক হাজার ১০০ ছাড়িয়েছে। মৃত ২৯ জন। সুস্থ হয়েছে বা হচ্ছে, এমন সংখ্যা শতাধিক। যে তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের তিনজন আছে।

এই পরিস্থিতিতে প্রধান বিচারপতি কেন্দ্রের কাছ থেকে রিপোর্ট তলব করেছেন। জানতে চাওয়া হয়েছে, অভিবাসী শ্রমিকদের সুরাহা দিতে কী কী পদক্ষেপ করা হয়েছে? আজ মঙ্গলবারের মধ্যে আদালতে দাখিল করতে হবে সেই স্ট্যাটাস রিপোর্ট।

সুপ্রিম কোর্ট সূত্র জানায়, ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে চলা শুনানিতে বিচারপতি বোবদে ও বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাওয়ের ডিভিশন বেঞ্চ স্পষ্ট করে বলেছেন, ‘কোনো নির্দেশ দেওয়ার আগে আমরা স্ট্যাটাস রিপোর্ট পর্যালোচনা করতে চাই।’ শুনানিতে কেন্দ্রের তরফে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা দাবি করেছেন, রাস্তায় নামা অভিবাসী শ্রমিকদের ঢল আটকানো সরকারের এখন প্রধান উদ্দেশ্য। যেভাবে ওরা পথে নেমেছে তাতে বাড়তে পারে সংক্রমণের মাত্রা। ওদের দুর্দশা নিয়ে উদ্বিগ্ন কেন্দ্র-রাজ্য। সুরাহা দিতে পদক্ষেপ নেওয়ার আরজি জানিয়ে অঙ্গরাজ্যের কাছে বার্তা পাঠানো হয়েছে। সূত্র : এনডিটিভি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা