kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২৬  মে ২০২০। ২ শাওয়াল ১৪৪১

নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিন নয় : ট্রাম্প

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩০ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিন নয় : ট্রাম্প

নিউ ইয়র্কে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ৫২ হাজার পেরোলেও রাজ্যটিকে অবরুদ্ধ করে রাখার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বলেছেন, ‘নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিনে রাখার দরকার পড়বে না।’ হোয়াইট হাউসের করোনাভাইরাস টাস্কফোর্সের সুপারিশেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে ট্রাম্প নিউ ইয়র্কে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়া নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে কভিড-১৯-এর বিস্তার কমাতে নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সি ও কানেকটিকাটের কিছু অংশে কোয়ারেন্টিন আরোপ করা হতে পারে বলে আভাস দিয়েছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রে যত মানুষ করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে এর অর্ধেকই নিউ ইয়র্কের। এ পরিস্থিতিতেই গত শনিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘এটি (নিউ ইয়র্ক) হটস্পট। এটিকে কোয়ারেন্টিনে রাখা ভালো হবে। আমি এ নিয়ে ভাবছি।’ নিউ ইয়র্ককে ফ্লোরিডার জন্য হুমকি বলে উল্লেখ করেছিলেন তিনি।

তবে ট্রাম্পের এ অবস্থান পাল্টে যায় নিউ ইয়র্কের গভর্নর এন্ড্রু কুয়োমোর বিরোধিতার পর। কুয়োমোর কথায়, নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিনে রাখা ‘যুক্তিসংগত’ হবে না। ভৌগোলিকভাবে লোকজনকে রাজ্য থেকে বেরোনো বন্ধ করে দিলে সেটি হবে ‘লকডাউন’। এ ধরনের পদক্ষেপ ‘মার্কিনবিরোধী’ সিদ্ধান্ত হবে বলেই মত তাঁর।

কুয়োমো বলেন, নিউ ইয়র্ক এরই মধ্যে কোয়ারেন্টিনের পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করেছে। যেমন : বড় ধরনের জমায়েত নিষিদ্ধ করা। লোকজনকে বাড়িতে থাকতে বলা। কিন্তু এর ওপর লকডাউনের মতো কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার বিরোধী তিনি। কারণ লকডাউন করলে অর্থনীতি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে, যে ক্ষতি মাসের পর মাসেও কাটিয়ে ওঠা অসম্ভব হবে।

এর পরই এক টুইটে ট্রাম্প বলেন, নিউ ইয়র্ককে কোয়ারেন্টিন না করে বরং এর বদলে নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সি ও কানেকটিকাটের জন্য ‘কঠোর ভ্রমণ নির্দেশিকা’ ইস্যু করবে সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।’ ট্রাম্পের এ ঘোষণার পরই সিডিসি তিন অঙ্গরাজ্যের বাসিন্দাদের প্রয়োজন না হলে সব ধরনের ভ্রমণ থেকে আগামী ১৪ দিন বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছে। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মী ও খাদ্য সরবরাহকারীরা এর আওতামুক্ত থাকবে বলে জানানো হয়েছে। সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা