kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২৯  মে ২০২০। ৫ শাওয়াল ১৪৪১

দুর্যোগে ভেদ ভুলে একসঙ্গে প্রার্থনা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইসরায়েলে তখন সন্ধ্যা ৬টা। বের শেভা শহরের এক রাস্তায় থামানো রয়েছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসার কাজে ব্যবহৃত একটি গাড়ি। পাশেই প্রার্থনায় মন দিয়েছেন দুই চিকিৎসাকর্মী। তাঁদের একজন মুসলিম। কিবলামুখী হয়ে জায়নামাজ বিছিয়ে নামাজ পড়ছেন তিনি। ঠিক পাশে দাঁড়িয়ে প্রার্থনায় রত তাঁর ইহুদি সহকর্মী। তাঁর মুখ জেরুজালেমের দিকে, কাঁধে ঝুলছে প্রার্থনার সাদা-কালো শাল। দৃশ্যটি সঙ্গে সঙ্গে ক্যামারাবন্দি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন তাঁদের আরেক সহকর্মী। মুহূর্তেই তা ভাইরাল হয়ে পড়ে। বিশ্বব্যাপী করোনা বিপর্যয়ের মুহূর্তে মানুষকে অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছে ছবিটি।

প্রার্থনারত ওই দুই চিকিৎসাকর্মীর নাম আব্রাহাম মিন্টজ এবং জোহের আবু জামা। আব্রাহাম ইহুদি আর জোহের মুসলিম। দুজনই ইসরায়েলের জরুরি সেবা মাগেন ড্যাভিড অ্যাডমের (এমডিএ) সদস্য। করোনা পরিস্থিতিতে খুবই ব্যস্ত সময় পার করতে হচ্ছে তাঁদের। উপসর্গ জানিয়ে শহরের নানা প্রান্ত থেকে মানুষ বিরতিহীনভাবে ফোন করেই যাচ্ছে। আগের চেয়ে ১০ গুণ বেশি ফোন পাচ্ছেন তাঁরা। এর মধ্যেই প্রার্থনার জন্য খানিকটা সময় বের করতে হয়েছে দুজনকে।

সিএনএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আব্রাহাম বলেন, ‘আমার বিশ্বাস, আমি, জোহের ও সারা বিশ্বের বেশির ভাগ মানুষ বোঝে যে এ পরিস্থিতিতে প্রার্থনা করে যেতে হবে। এটিই শুধু আমাদের হাতে আছে।’

জোহের বলেন, ‘বিশ্বাস ও ব্যক্তিত্বের কথা যদি ধরি, তবে আমাদের বিশ্বাস একই সুতোয় গাঁথা। আমাদের মধ্যে অনেক বিষয়ে মিল রয়েছে।’

আব্রাহাম ও জোহেরের এক জায়গায় প্রার্থনারত হওয়ার দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অল্প সময়ে অনেক জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। হাজার হাজার লাইক পড়ছে এতে। ইনস্টাগ্রামে একজন লিখেছেন, ‘সব ধরনের সেবা কার্যক্রমের জন্য আমি গর্বিত। কে কোন ধর্মের বা কোন সম্প্রদায়ের, তা কোনো ব্যাপার না।’ টুইটারে আরেকজন লিখেছেন, ‘একটাই লড়াই! একটাই বিজয়! আসুন ঐক্যবদ্ধ হই!’ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমও ছবিটি প্রচার করেছে। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা