kalerkantho

রবিবার । ২২ চৈত্র ১৪২৬। ৫ এপ্রিল ২০২০। ১০ শাবান ১৪৪১

সংক্ষিপ্ত

চাঁদের উল্টোপিঠ গুঁড়ো পাথর আর ধুলোয় ঢাকা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রথমবারের মত চাঁদের অন্ধকার দিকটায় অবতরণ করা চন্দ্রযান পৃথিবীতে তথ্য পাঠাতে শুরু করেছে। পৃথিবীকে কেন্দ্র করে আবর্তিত একমাত্র প্রাকৃতিক উপগ্রহে অদেখা সেই জগতের তথ্য সংগ্রহের সাফল্য দেখিয়েছেন চীনের মহাকাশবিজ্ঞানীরা।

চীনের পাঠানো চ্যাং’ই-৪ চন্দ্রযান চাঁদের অন্ধকার অংশে অবতরণ করে গত বছর ৩ জানুয়ারি। এরপর সেটি থেকে ইউতু-২ শীর্ষক রোভার চাঁদের বুকে নেমে পথ চলতে শুরু করে। চাঁদের সবচেয়ে প্রাচীন ও বৃহত্তম গর্ত সাউথ পোল-এইটকেন বেসিনের দিকে যাত্রা করে সেটি। এক হাজার ৫৫৩ মাইল ব্যাসার্ধের ওই গর্তে ইতিমধ্যে পৌঁছেও গেছে ইউতু-২। রোভারটির পাঠানো তথ্যমতে, ওই এলাকার সবচেয়ে ওপরের স্তরটি কেবলই গুড়ো পাথর আর ধুলোয় ঢাকা এবং স্তরটি ৩৯ ফুট পুরু। চাঁদের আলোকিত অংশের ওপরের স্তরের গঠনও একই রকম। ইউতু-২ এর বিশেষ রাডারে (লুনার পেনেট্রেটিং রাডার) ধরা পড়েছে চন্দ্রপৃষ্ঠের দ্বিতীয় স্তরের গঠনও। চায়নিজ একাডেমি অব সায়েন্সেসের ন্যাশনাল অ্যাস্ট্রনোমিক্যাল অবজারভেশনের মহাপরিচালক লি চুনলাই জানান, চাঁদের আলোকিত ও অন্ধকার অংশের পৃষ্ঠের দ্বিতীয় স্তরের গঠন আলাদা। ওই স্তরে বিভিন্ন আকারের পাথরের চাই আছে এবং সেগুলো ঝাঁঝরা হয়ে আছে, সেগুলোয় বিভিন্ন কণা গেঁথে আছে। সম্ভবত আমাদের সৌরজগতের ঝঞ্ঝাবিক্ষুব্ধ সময়ে বারবার উল্কাপিণ্ডের আঘাতে ওই পাথরগুলোর এ অবস্থা হয়েছে। এছাড়া যতবার চাঁদে কোনো সৌরবস্তু আঘাত করেছে, ততবারই চন্দ্রপৃষ্ঠের গঠনে পরিবর্তন এসেছে।

সূত্র: সিএনএন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা