kalerkantho

বুধবার । ১২ কার্তিক ১৪২৭। ২৮ অক্টোবর ২০২০। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

মার্কিন গোয়েন্দাদের সতর্কবার্তা

ট্রাম্পকে পুনর্নির্বাচিত হতে সহায়তা করছে রাশিয়া

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ট্রাম্পকে পুনর্নির্বাচিত হতে সহায়তা করছে রাশিয়া

ডোনাল্ড ট্রাম্প

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ফের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করতে চায় রাশিয়া। এ জন্য তারা এরই মধ্যে মাঠে নেমে পড়েছে। এ সতর্কতা দিয়েছে মার্কিন গোয়েন্দারা। গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দেশটির গণমাধ্যম বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর দাবি, রাশিয়া ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার করে প্রচারাভিযানে হস্তক্ষেপ করে। তারা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের অ্যাকাউন্ট থেকে ই-মেইল চুরি ও বিতরণ করে। গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর মতে, রাশিয়া ট্রাম্পের প্রচারে সাহায্য করে এবং যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করে। যদিও ট্রাম্প ওই অভিযোগ বরাবরই প্রত্যাখ্যান করে আসছেন। ওই অভিযোগ ওঠার পর থেকে ট্রাম্পের সঙ্গে মার্কিন গোয়েন্দা বিভাগের সম্পর্কের চরম অবনতি ঘটে। চলতি বছরের নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে। তার আগে আগে গোয়েন্দারা ফের একই অভিযোগ তুললেন।

বৃহস্পতিবার নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা গত ১৩ ফেব্রুয়ারি হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভসের গোয়েন্দা কমিটির আইনজীবীদের সঙ্গে গোয়েন্দাদের এক রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয়। ওই বৈঠকেই বলা হয়, ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়া হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে।

নিউ ইয়র্ক টাইমস জানায়, খবরটি প্রকাশ পাওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প রেগে যান এবং তিনি বলেন, এসব খবর মিথ্যা ও বানোয়াট। তিনি অভিযোগ করেন, নির্বাচনে জেতার জন্য ডেমোক্র্যাটরা তাঁর বিরুদ্ধে এসব তথ্য ব্যবহার করবেন। ঘটনার পর তিনি জাতীয় গোয়েন্দা বিভাগের বিদায়ি পরিচালক জোসেফ ম্যাগুয়ারকে তীব্র ভর্ত্সনা করেন ট্রাম্প। ট্রাম্প ক্ষিপ্ত হওয়ার আরেকটি কারণ হচ্ছে—হাউসের ওই ব্রিফিংয়ে ডেমোক্র্যাট নেতা অ্যাডাম স্কিফ উপস্থিত ছিলেন। অ্যাডাম স্কিফ এর আগে কংগ্রেসে ট্রাম্পকে অভিশংসন করার প্রক্রিয়ায় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম জানায়, গোয়েন্দাদের ব্রিফিংয়ের পরই ট্রাম্প ম্যাগুইয়ারকে তাঁর পদ থেকে সরানোর ঘোষণা দেন। তাঁর জায়গায় ট্রাম্পের আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিত জার্মানিতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত রিচার্ড গ্রেনেলকে বসানো হচ্ছে বলে জানান। নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ওই রুদ্ধদ্বার বৈঠকে গোয়েন্দাদের সঙ্গে অ্যাডাম স্কিফ কিভাবে উপস্থিত ছিলেন, তা নিয়েও ট্রাম্প বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। অন্যদিকে রিচার্ড গ্রেনেলের মতো দলান্ধ একজনকে মার্কিন গোয়েন্দা বিভাগের প্রধানের দায়িত্বে আনার কড়া সমালোচনা করেছেন ডেমোক্র্যাট দলের মুখপাত্র। সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য