kalerkantho

শনিবার । ৯ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪১

‘গণতন্ত্রে ভারসাম্য রাখতে বিরোধীদের মর্যাদা চাই’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘গণতন্ত্রে ভারসাম্য রাখতে বিরোধীদের মর্যাদা চাই’

ভারতে গণতন্ত্রের ভিত পোক্ত করতে আরো শক্তিশালী বিরোধীর প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিজিতের মতে, গণতন্ত্রে ভারসাম্য বজায় রাখতে সরকারেরও উচিত বিরোধী শক্তিকে মর্যাদা দেওয়া। রবিবার জয়পুর সাহিত্য উৎসবে এ কথা বলেন তিনি।

অভিজিৎকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, ভারতে থাকলে তিনি নোবেল পুরস্কার পেতেন কি না। ৫৮ বছরের অর্থনীতিবিদ কিন্তু বলেন, ‘সেটা সম্ভব হতো বলে মনে করি না।’ এর পরেই বিষয়টি ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ভারতে প্রতিভার অভাব নেই। কিন্তু কাঠামোগত সমস্যা আছে। অভিজিতের কথায়, ‘এত বড় কাজ একা সম্ভব হয় না। পরিসর বাড়লে একসঙ্গে অনেকের সাহায্য পাওয়া যায়।’ নোবেল জয়ের কৃতিত্বের বেশির ভাগটাই দিয়েছেন তাঁর মার্কিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমআইটিকে। তিনি বলেছেন, ‘এখান থেকে প্রচুর উপকৃত হয়েছি। বিশ্বের সেরা পড়ুয়ারা গবেষণা করেন। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমার কাজের অনেকটা জুড়েই আসলে অন্য অনেকের অবদান রয়েছে।’

ভারতের অর্থনীতি নিয়ে তাঁর উদ্বেগের কথাও এদিন খোলাখুলি বলেন অভিজিৎ। তাঁর মতে, ভারতের অর্থনীতি সম্পর্কে সাধারণ মানুষের আস্থাটাই নড়বড়ে হয়ে গেছে। অভিজিতের কথায়, ‘সরকার জানেই না তারা কোন দিকে চলেছে, কিসের মধ্যে ঢুকছে। কেন্দ্র যদি আরো লগ্নি চায় এবং আন্তর্জাতিক অর্থনীতিতে আরো সম্পৃক্ত হতে চায়, তাহলে আমজনতার কাছে তাদের সঠিক তথ্য-পরিসংখ্যান পৌঁছে দেওয়া জরুরি।’ এর আগে ভারতীয় অর্থনীতির দুরবস্থা নিয়ে মুখ খোলায় অভিজিৎকে ‘বামঘেঁষা’ বলে দাগিয়ে দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গয়াল। তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও তীব্র কটাক্ষ করেছিলেন বিজেপি নেতা রাহুল সিংহ। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা