kalerkantho

মঙ্গলবার । ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সিনেটে অভিশংসন প্রক্রিয়া

ট্রাম্পকে বাঁচাতে লড়বেন যাঁরা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে অভিশংসন প্রক্রিয়া চলাকালে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে রক্ষায় যাঁরা লড়বেন, তাঁদের নাম ঘোষণা করেছে হোয়াইট হাউস। এ তালিকায় এমন ব্যক্তিও রয়েছেন, যিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের যৌন কেলেঙ্কারির তদন্তকারী ছিলেন। তবে তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী রুডি গিলিয়ানি।

সিনেটে অভিশংসন প্রক্রিয়ায় ট্রাম্পের পক্ষে শুনানিতে যাঁরা অংশ নিতে যাচ্ছেন, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁদের একাংশের নাম ঘোষণা করেছে হোয়াইট হাউস। তালিকায় রয়েছে ট্রাম্পের বিভিন্ন নীতিনির্ধারণী কর্মকাণ্ডে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা ব্যক্তিদের নাম। আছেন জাঁদরেল আইনজীবীও।

তালিকাভুক্ত কেন স্টার এবারই প্রথম কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের অভিশংসন প্রক্রিয়ায় অংশ নিচ্ছেন, তা নয়। এর আগে ডেমোক্রেট দলের প্রেসিডেন্ট ক্লিনটনের এবং তাঁর স্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের আবাসন খাতে বিনিয়োগের ব্যাপারে তদন্ত করেছেন তিনি। তাঁর হাত ধরেই ওই তদন্তকালে ক্লিনটনের যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনা উঠে আসে এবং ওই কেলেঙ্কারির জেরে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে অভিশংসিত হন ক্লিনটন। কেন স্টারের আরেক পরিচয় হল তিনি মার্কিন বিচার বিভাগের স্বতন্ত্র উপদেষ্টা ছিলেন। তাঁর উত্তরসূরি রবার্ট রে। তিনিও ট্রাম্পের পক্ষে লড়বেন।

আরো আছেন যুক্তরাষ্ট্রে তারকাখ্যাতি পাওয়া আইনজীবী হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অ্যালান ডারশোউইটজ। অতীতে তিনি চলচ্চিত্র পরিচালক, বক্সিং চ্যাম্পিয়নসহ আরো অনেক বিখ্যাত ব্যক্তির আইনজীবীর ভূমিকা পালন করেছেন।

ট্রাম্পের পক্ষের দলের নেতৃত্বে থাকছেন অত্যন্ত বিচক্ষণ ও স্বল্পভাষী হিসেবে পরিচিত প্যাট সিপোলোন। প্রেসিডেন্টের অভিশংসন তদন্তের বিরুদ্ধে তিনিই শুরু থেকে জোরালো প্রতিরোধ গড়ে তুলেছেন। সিপোলোনের সঙ্গে থাকছেন ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী জে সেকুলো। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকালে ট্রাম্পের সহযোগীদের সঙ্গে রুশ কূটনীতিকদের আঁতাতের অভিযোগে দুই বছর ধরে যে তদন্ত হয়েছে, তাতে ট্রাম্পের পিঠ বাঁচাতে মূল ভূমিকা পালন করেছেন সেকুলো।

ট্রাম্পের প্রতি যাঁদের আনুগত্য প্রশ্নাতীত, অভিশংসনবিরোধী দলে মূলত তাঁদেরই জায়গা দেওয়া হয়েছে। তবে ব্যতিক্রম ঘটেছে তাঁর ব্যক্তিগত আইনজীবী গিলিয়ানির ক্ষেত্রে। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলায় তিনি অনবরত লড়তে থাকলেও অভিশংসনের মতো স্পর্শকাতর ইস্যু সামাল দেওয়ার দলে তাঁকে রাখা হয়নি। সিবিএস সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানান, এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে, এমনটা তিনি আগেই ধারণা করেছেন। তাঁকে সিনেটের শুনানিকালে সাক্ষী হিসেবে ডাকা হতে পারে বলে অনুমান করছেন তিনি।

আগামী নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনকে কোণঠাসা করার জন্য তাঁর বিরুদ্ধে ইউক্রেনে তদন্ত শুরুর চেষ্টা চালিয়েছেন—এমন অভিযোগে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভস। প্রায় দুই মাসের তদন্ত ও সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে ক্ষমতার অপব্যবহার ও কংগ্রেসের কাজে বাধাদানের অভিযোগে তাঁকে অভিশংসন করে হাউস। এবার বিষয়টি সিনেটে উঠেছে। আগামী মঙ্গলবার থেকে অভিশংসন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা। তবে রিপাবলিকান অধ্যুষিত সিনেটে ট্রাম্পই জিতবেন বলে পর্যবেক্ষকদের ধারণা। সূত্র : এএফপি, বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা