kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জানুয়ারি ২০২০। ১৪ মাঘ ১৪২৬। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

গণমাধ্যমের খবরে ক্ষুব্ধ উইলিয়াম-হ্যারি

হ্যারির প্রাসাদ ছাড়ার চুক্তি আজ-কালের মধ্যে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হ্যারির প্রাসাদ ছাড়ার চুক্তি আজ-কালের মধ্যে

ব্রিটিশ প্রিন্স হ্যারির রাজপরিবার ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে চলমান দ্বন্দ্ব নিরসনে গতকাল রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ তাঁর ছেলে ও দুই নাতিকে নিয়ে আলোচনায় বসেন। এ আলোচনা থেকেই একটি চুক্তি আজ-কালের মধ্যেই পাওয়া যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। এদিকে প্রিন্স উইলিয়াম ও প্রিন্স হ্যারির মধ্যে সম্পর্ক ভালো নেই বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যমে যে প্রচার চলছে তার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন দুই ভাই।

হ্যারি রাজপরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্যের পদ ছাড়ার ঘোষণা দেওয়ার পর গতকালই প্রথম নাতির সঙ্গে সরাসরি কথা বলেন রানি। এ সময় তাঁর ছেলে ও হ্যারির বাবা যুবরাজ চার্লস ও প্রিন্স উইলিয়ামও উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের এ আলোচনায় হ্যারির স্ত্রী মেগান যোগ দেন কানাডা থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে।

আলোচনার বিষয়বস্তু সম্পর্কে রাজপ্রসাদ থেকে কোনো তথ্য পাওয়া না গেলেও ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম জানায়, দায়িত্ব ছাড়ার পর হ্যারি ও মেগান কী পরিমাণ অর্থ রাজপরিবার থেকে পাবেন, তা নিয়ে তাঁদের মধ্যে কথা হবে। এ ছাড়া পদবি ছাড়বেন কি না এবং রাজকীয় দায়িত্ব কী করে বণ্টন করা হবে, তা নিয়েও আলোচনা করবেন তাঁরা। সব কিছু ঠিক থাকলে আজ মঙ্গলবার বা আগামীকাল বুধবারের মধ্যেই তাঁদের রাজপরিবার ছাড়ার বিষয়ে একটি চুক্তিতে উপনীত হওয়া সম্ভব হবে।

এদিকে উইলিয়াম ও হ্যারির মধ্যে সম্পর্ক ভালো নেই বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যমে যে প্রচারণা চলছে তার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন দুই ভাই। তাঁদের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে গণমাধ্যমের ভাষাকে অত্যন্ত আক্রমণাত্মক হিসেবে বর্ণনা করা হয়।

রাজপরিবারের নিয়ম-কানুনে ত্যক্ত-বিরক্ত হ্যারি ও মেগান গত বুধবার জ্যেষ্ঠ সদস্যের পদ ছাড়ার ঘোষণা দেন। তাঁদের এই আকস্মিক ঘোষণা পুরো ব্রিটেনে আলোড়ন তৈরি করে। সূত্র : বিবিসি, এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা