kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

‘খুব গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা’ চালিয়েছে পিয়ংইয়ং

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পরমাণু আলোচনার সম্ভাবনা বাতিল

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনার সম্ভাবনা একেবারে নাকচ করে দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। গত শনিবার এক বিবৃতিতে পিয়ংইয়ংয়ের এক কূটনীতিক তাঁর দেশের এ অবস্থানের কথা জানান। আর পরদিন গতকাল রবিবার পিয়ংইয়ং জানায়, নিজেদের মহাকাশযান উৎক্ষেপণ কেন্দ্রে তারা ‘খুব গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা’ চালিয়েছে।

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ প্রশ্নে উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের তিন দফা বৈঠক সত্ত্বেও কোনো অগ্রগতি হয়নি। দুই নেতার বৈঠকের পর পরস্পরকে বাক্যবাণে বিদ্ধ করার প্রবণতায় বেশ কিছুদিনের জন্য ভাটা পড়েছিল, যা আবার শুরু হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার মার্কিন রাষ্ট্রপ্রধান ট্রাম্পকে ‘ভীমরতিগ্রস্ত বুড়ো’ অ্যাখ্যা দেয় পিয়ংইয়ং। এ ছাড়া ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাও করেছে তারা। এর ধারাবাহিকতায় গতকাল উত্তর কোরিয়ার একাডেমি অব দ্য ন্যাশনাল ডিফেন্স সায়েন্সের এক মুখপাত্র বিবৃতিতে বলে, ‘সোহায়ে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ কেন্দ্রে ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে খুব গুরুত্বপূর্ণ এক পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে।’ এ পরীক্ষার ফলাফল উত্তর কোরিয়ার কৌশলগত অবস্থান পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মন্তব্য করেন ওই মুখপাত্র। তবে কী ধরনের পরীক্ষা চালানো হয়েছে, সে ব্যাপারে বিস্তারিত জানায়নি পিয়ংইয়ং।

‘গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা’সংক্রান্ত বিবৃতি দেওয়ার আগের দিন শনিবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে নিযুক্ত উত্তর কোরিয়ার দূত কিম সং বিবৃতিতে বলেন, ইউরোপের ‘মস্তিষ্কবিকৃতি’ ঘটেছে এবং যুক্তরাষ্ট্র ‘শত্রুভাবাপন্ন নীতি’ অবলম্বন করছে, তাই যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সুদীর্ঘ আলোচনার আর কোনো প্রয়োজন নেই। ‘আর পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ ইস্যু এরই মধ্যে আলোচনার আওতার বাইরে চলে গেছে’, এমন মন্তব্যও করেন উত্তর কোরিয়ার ওই কূটনীতিক। 

বেশ কিছুদিনের নীরবতা ভেঙে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র কার্যক্রমের তৎপরতা বাড়ানোর কারণ সম্পর্কে পর্যবেক্ষকদের অভিমত, থমকে যাওয়া পরমাণু আলোচনা শুরুর জন্য পিয়ংইয়ং আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত যে সময় বেঁধে দিয়েছে, সেই সময় এগিয়ে আসতে থাকায় ওয়াশিংটনের ওপর চাপ বাড়ানোর লক্ষ্যে তারা নানা চেষ্টা চালাচ্ছে। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা