kalerkantho

সোমবার । ২০ জানুয়ারি ২০২০। ৬ মাঘ ১৪২৬। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

অভিযানে অস্ত্র উদ্ধার

হংকংয়ে গণ-আন্দোলনের অর্ধবর্ষ পূর্তিতে বিশাল সমাবেশ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হংকংয়ে গণ-আন্দোলনের অর্ধবর্ষ পূর্তিতে বিশাল সমাবেশ

হংকংয়ের ভিক্টোরিয়া পার্কে গতকাল গণতন্ত্রপন্থীরা সমাবেশ করে। ছবি : এএফপি

হংকংয়ে সরকারবিরোধী আন্দোলনের অর্ধবর্ষ পূর্তিতে বিশাল সমাবেশের আয়োজন করেছে বিক্ষোভকারীরা। গতকাল রবিবার এই সমাবেশের আগে পুলিশ অভিযান চালিয়ে একটি পিস্তল, গুলিসহ বেশ কিছু অস্ত্র উদ্ধার করেছে। বেশ কয়েকটি দাবি নিয়ে হংকংয়ের বেইজিংপন্থী সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য আন্দোলনকারীরা গতকালের এই সমাবেশের ডাক দেয়।

জুন মাসে শুরু হওয়া আন্দোলনকে আরো জোরালো করতে গতকাল ব্যাপকসংখ্যক বিক্ষোভকারী রাস্তায় নামে। রাজনৈতিক এই দুরবস্থা থেকে মুক্তি পেতে হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি লামের জন্য এটিই শেষ সুযোগ বলে বিক্ষোভকারীরা জানায়। বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকলেও গতকালের সমাবেশের ব্যাপারে পুলিশ বেশ নমনীয় ছিল। তারা আগেই সমাবেশের অনুমতি দিয়েছিল। 

গত নভেম্বরে স্থানীয় নির্বাচনে গণতন্ত্রপন্থীরা ব্যাপক জয় পায়। আন্দোলনকারীদের একজন ৫০ বছর বয়সী ওং বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ সমাবেশ আর ভোটের মাধ্যমে আমরা যে মতামত প্রকাশ করি না কেন সরকার তা শুনবে না। তারা শুধু চীনের সরকারের কাছ থেকে আসা নির্দেশ অনুসরণ করছে। আর ৪০ বছর বয়সী এক নারী বলেছেন, ‘মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আমি মুক্তির জন্য লড়ে যাব।’

জুন মাসে শুরু হওয়া আন্দোলন এ পর্যন্ত বেশির ভাগ সংঘাতময় হলেও নভেম্বরের নির্বাচনের পর আন্দোলনে সহিংসতা কম ছিল। পুলিশ গতকালের সমাবেশের অনুমতি দিলে সহিংসতার ব্যাপারে কোনো রকম ছাড় দেবে না বলে আগেই সতর্ক করে দিয়েছে। সিভিল হিউম্যান রাইটস ফ্রন্ট (সিএইচআরএফ) নেতা জিমি শ্যাম বিক্ষেভাকারীদের সংঘাত থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তবে তিনি সতর্ক করে দিয়ে জানিয়েছেন, এটি ক্যারি লামের জন্য শেষ সুযোগ।

এদিকে সমাবেশ শুরুর আগে পুলিশ বেশ কিছু অস্ত্র প্রদর্শন করে। তাদের মধ্যে রয়েছে একটি পিস্তল, ১০৫ রাউন্ড গুলি, কয়েক বোতল মরিচমিশ্রিত পানি, বিস্তৃত করা যায় এমন ৯টি ছুরি ও একটি সামুরাই ছুরি প্রদর্শন করে। পুলিশের দাবি, আগের রাতে অভিযান চালিয়ে এসব উদ্ধার করা হয়েছে। অভিযানে পুলিশ ১১ জনকে আটকের কথা জানায়। পুলিশের সুপারিনটেনডেন্ট লি কোয়াই ওয়া বলেন, ‘আমাদের বিশ্বাস, একটি দল বিশৃঙ্খলার মধ্যে অস্ত্র ব্যবহারের পরিকল্পনা করছে এবং পুলিশের ওপর হামলা চালাতে চাইছে।’ সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা