kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

ধর্ষকদের ক্ষমা প্রার্থনার অধিকারই থাকা উচিত নয় : কোবিন্দ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যৌন নির্যাতন থেকে শিশুদের রক্ষা আইনের (পকসো) আওতায় ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্তদের ক্ষমা প্রার্থনার কোনো অধিকারই থাকা উচিত নয় বলে মনে করেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। তাঁর মতে, এ ব্যাপারে ক্ষমাপ্রার্থনার অধিকারসংক্রান্ত যে আইন রয়েছে, পার্লামেন্টের তা খতিয়ে দেখা উচিত। গতকাল শুক্রবার রাজস্থানের সিরোহিতে এক অনুষ্ঠানে নারীদের নিরাপত্তা প্রসঙ্গে এ কথা বলেন তিনি। রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘নারীদের নিরাপত্তাকে অত্যন্ত গুরুত্ব দিতে হবে।’

এদিকে ২০১২ সালে দিল্লিতে নির্ভয়া গণধর্ষণকাণ্ডের অন্যতম আসামি বিনয় শর্মার ক্ষমাপ্রার্থনার আরজি খারিজের সুপারিশ করে এদিন রাষ্ট্রপতির কাছে একটি ফাইল পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ওই গণধর্ষণের ঘটনার চার আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বিচারের সময় জেলে বন্দি এক আসামি আত্মঘাতী হন। অপরাধের সময় নাবালক থাকায় আর এক আসামিকে জুভেনাইল হোমে পাঠানো হয়।

নির্ভয়াকাণ্ডে যে চারজনকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে, তাদের মধ্যে একমাত্র বিনয় শর্মাই ক্ষমাপ্রার্থনার আরজি জানিয়েছিল রাষ্ট্রপতির কাছে। ওই আসামি ক্ষমাপ্রার্থনার আরজি জানিয়েছিল দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বাইজলের কাছেও। দিন দুয়েক আগে তিনিও খারিজ করে দেন সেই আরজি। শুধুই আরজি খারিজ নয়, দিল্লি সরকারও ধর্ষকদের ক্ষমাপ্রার্থনার অধিকার কেড়ে নেওয়ার সুপারিশ পাঠিয়েছে রাষ্ট্রপতি কোবিন্দের কাছে। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা