kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

পেঁয়াজের ঝাঁজ বাড়ছে ভারতেও

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পেঁয়াজের ঝাঁজ বাড়ছে ভারতেও

মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে পেঁয়াজের মালা গলায় দিয়ে দিল্লিতে বিরোধী দল কংগ্রেসের বিক্ষোভ। বুধবারের ছবি। ছবি : হিন্দুস্তান টাইমস

ভারত রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর বাংলাদেশে পেঁয়াজের দাম চড়েছে রকেট গতিতে। তখনো ভারতের পেঁয়াজের বাজার সহনীয় ছিল। তবে এখন পেঁয়াজ ঝাঁজ ছড়াচ্ছে ভারতেও। পশ্চিমবঙ্গে পেঁয়াজ এখন দেড় শ রুপি প্রতি কেজি। দিল্লিতেও দাম ১০০ রুপি ছাড়িয়েছে। সরকার পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না বলে বিরোধীরা পার্লামেন্টে সরব হয়েছে। পেঁয়াজ রপ্তানিকারী দেশ ভারত এখন নিজেই পেঁয়াজ আমদানি করছে।

ভারত সরকার বলছে, যেখানে পেঁয়াজ চাষ সবচেয়ে বেশি হয়, সেই মহারাষ্ট্রে ব্যাপক বন্যার কারণে উৎপাদন মার খেয়েছে। সরকার কম দামে পেঁয়াজ সরবরাহ করার চেষ্টা করছে বলেও দাবি করা হচ্ছে। আর অন্যান্য এলাকায় যারা পেঁয়াজ চাষ করে, তারা বলছে কয়েক মাস আগেও ছয়-সাড়ে ছয় টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রি করেছে ক্ষেত থেকে। সেই দামে অবশ্য চাষিদের লাভ কিছুই থাকে না। তবু সেই পেঁয়াজই মুজদ করে এখন আগুন দামে বিক্রি করা হচ্ছে।

পাইকারি বাজারে বা খুচরা দোকানে পেঁয়াজের ক্রমাগত দাম বৃদ্ধি কতটা নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে, তা নিয়ে প্রশাসনিক মহলেই সন্দেহ রয়েছে। বাজারের চাহিদা পূরণে ভারত নিজেই বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি করছে। গত বুধবার তুরস্ক থেকে বড়সড় এক চালান এসে পৌঁছেছে কর্ণাটকের ম্যাঙ্গালোরে, যে চালানে ১১ হাজার টন পেঁয়াজ আনা হয়েছে।

পেঁয়াজ বিপণনের দায়িত্বে আছে ন্যাফেড বলে যে সরকারি এজেন্সি, তাদের কাছ থেকে পশ্চিমবঙ্গ সরকার ৮০০ টন পেঁয়াজ আনার অর্ডার পেশ করেছে বলে রাজ্য সরকারের এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা পিটিআই। ওই পেঁয়াজ মুম্বাই বন্দরে ৫৫ রুপি কেজি দরে আনা হবে, যার সঙ্গে পরিবহন খরচ ইত্যাদি যোগ করে কলকাতায় তা ৬৫ রুপি কেজি দরে বিক্রি করা সম্ভব হবে বলে পিটিআই জানাচ্ছে।

সূত্র : এনডিটিভি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা