kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

জলবায়ু সম্মেলন

আশা রাখুন, নয়তো আত্মসমর্পণ করুন

—গুতেরেস

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, ‘জলবায়ু সংকট মানব সভ্যতাকে হুমকির মুখে ঠেলে দিয়েছে। মানুষকে এখনই বেছে নিতে হবে, তারা আশা নিয়ে বাঁচতে চায় নাকি পরিস্থিতির কাছে আত্মসমর্পণ করতে চায়।’ স্পেনের মাদ্রিদে জাতিসংঘ আয়োজিত জলবায়ু সম্মেলনের উদ্বোধনের আগে গতকাল সোমবার এ মন্তব্য করেন তিনি। কোপ২৫ নামে এই সম্মেলন আজ শুরু হচ্ছে।

গুতেরেস বলেন, একটি পথ হচ্ছে আত্মসমর্পণ করা। এই নিদ্রায় আমরা সেই পর্যায়কে ছাড়িয়ে যেতে পারি যেখান থেকে ফেরার আর কোনো পথ থাকে না। এই পৃথিবীর সবার স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তাকে চরম ঝুঁকির মুখে ঠেলে দিতে পারি আমরা।’ তিনি প্রশ্ন করেন, ‘আমরা কি এমন এক প্রজন্ম হিসেবে পরিচিত হতে চাই, যারা বালুতে মুখ লুকিয়ে জীবন পার করে গেছে?’

গুতেরেস তাঁর কথার সমর্থনে পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাবের লম্বা একটি তালিকাও প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, জলবায়ু সংকটের কারণে আফ্রিকার কোটি কোটি মানুষ ক্ষুধার্ত। এর কারণে যে ঘূর্ণিঝড় ও খরা হচ্ছে তার প্রভাবে খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে তিন কোটি ৩০ লাখ মানুষ।’ এসব তথ্য অবশ্য গত সপ্তাহেই জাতিসংঘ শিশু তহবিল সেভ দ্য চিলড্রেন প্রকাশ করে।

গুতেরেস ২০১৫ সালের প্যারিস সম্মেলনের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘গতবার একটি তুলনামূলক পরিস্থিতি ছিল। তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি ছিল। সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বেড়েছিল ১০-২০ মিটার।’  তিনি আরো বলেন, ‘তবে আর্কটিকের ভূগর্ভস্থ চির হিমায়িত অঞ্চল ধারণার চেয়ে দ্রুত গতিতে গলছে। এখন যেভাবে গলছে আমাদের হিসাবে তা আরো ৭০ বছর পরে হওয়ার কথা ছিল।  ২০৫০ সালের মধ্যে ১৫ কোটিরও বেশি মানুষ উপকূলীয় বন্যাপ্রবণ এলাকায় বাস করতে বাধ্য হবে।’ সূত্র : এএফপি, বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা