kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আইরিশ সীমান্ত নিয়ে শেষ সুযোগ চান জনসন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ইঙ্গিত দিয়েছেন, ব্রেক্সিট চুক্তির জন্য আইরিশ সীমান্ত ব্যবস্থাপনা নিয়ে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সমাধানের পথ খুঁজতে চান। আইরিশ সীমান্ত নিয়ে এটিকে শেষ সুযোগ হিসেবে দেখছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। গত শুক্রবার জনসন সময়সীমা নিয়ে ওই ইঙ্গিত দেন।

গত বৃহস্পতিবার জনসন ও আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী লিও ভারাদকার এক বৈঠক শেষে ব্রেক্সিট নিয়ে নতুন ‘পথ’ খুঁজে পাওয়ার দাবি করেন। সেই ‘পথের সম্ভাব্যতা’ যাচাইয়ে শুক্রবার বৈঠকে বসেন ব্রিটেন ও ইউরোপের শীর্ষ ব্রেক্সিট সমঝোতাকারীরা। ব্রিটিশ ব্রেক্সিট মন্ত্রী স্টিফেন বার্কলে ও ইইউ প্রধান মধ্যস্থতাকারী মিশেল বার্নিয়ের মধ্যকার এ বৈঠক ব্রাসেলসে ইইউয়ের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। রুদ্ধধার ওই বৈঠককে উভয় পক্ষই ‘গঠনমূলক’ বলে মন্তব্য করে।

এদিন ইউরোপীয় কূটনীতিকরা জানান, নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী আয়ারল্যান্ড ও উত্তর আয়ারল্যান্ডের মধ্যে কোনো শুল্ক সীমান্ত থাকবে না। ব্রিটেনের আগের অবস্থান থেকে এটিকে অগ্রগতিই বলা যায়।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, নতুন প্রস্তাবের বিষয়ে জনসন পার্লামেন্টে সমর্থন পেতে পারেন। অবশ্য ইতিবাচক অগ্রগতি হলেও সীমান্ত ব্যবস্থাপনার বিষয়টি জটিল। এটি নিয়ে আরো বিস্তারিত কাজ করতে হবে।

মূলত আইরিশ সীমান্ত ব্যবস্থাপনা নিয়ে ব্রেক্সিট বারবার ঝুলে যাচ্ছে। বিতর্কিত ‘ব্যাক স্টপ’ শর্তের কারণে সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মের করা ব্রেক্সিট চুক্তি তিন দফা প্রত্যাখ্যান করে যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্ট। গত সপ্তাহে বরিস জনসন আইরিশ সীমান্ত নিয়ে নতুন প্রস্তাব দিয়েছেন। এ প্রস্তাবের মধ্যে আছে, ব্রেক্সিটের পরও উত্তর আয়ারল্যান্ড খাদ্য, শিল্পজাত পণ্য ও পশুসম্পদের ক্ষেত্রে ইউরোপীয় ইউনিয়নের একক বাজার ব্যবস্থার মধ্যেই থাকবে। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা