kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কাশ্মীর ও এনআরসি নিয়ে গভীর উদ্বেগ জাতিসংঘের

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাশ্মীরের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের প্রধান মিশেল বাচেলেত। তিনি বলেছেন, জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে দেওয়ার পর ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার সেখানে যেভাবে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে রেখেছে তাতে ‘গভীরভাবে উদ্বিগ্ন’ তিনি।

গতকাল সোমবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪২তম অধিবেশনের উদ্বোধনী ভাষণে বাচেলেত কাশ্মীরের পাশাপাশি আসাম রাজ্যের চূড়ান্ত জাতীয় নাগরিক নিবন্ধন (এনআরসি) থেকে বাদ পড়া প্রায় ২০ লাখ মানুষের জীবনের অনিশ্চয়তা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন। কাশ্মীর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক যোগাযোগ ও শান্তিপূর্ণ সমাবেশে বিধিনিষেধ আরোপ এবং স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের আটকে রাখাসহ কাশ্মীরিদের মানবাধিকার নিয়ে ভারত সরকারের সাম্প্রতিক পদক্ষেপের প্রভাব সম্পর্কে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘যদিও আমি ভারত ও পাকিস্তান উভয় দেশের সরকারকেই মানবাধিকারকে সম্মানিত ও সুরক্ষিত করার জন্য অনুরোধ করে চলেছি, তবু আমি বিশেষ করে ভারতের কাছে বর্তমান অবরুদ্ধ পরিস্থিতি বা কারফিউকে সহজ করার জন্য; বেসিক পরিষেবাগুলোতে মানুষের প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করার জন্য আবেদন করেছি; এবং যেসব নেতা আটক রয়েছেন তাঁদের মানবাধিকারের প্রতিও যাতে শ্রদ্ধা জানানো হয় সেই অনুরোধ করছি। এসব ব্যাপারে কাশ্মীরের জনগণের সঙ্গে পরামর্শ করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এই সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে তাঁদের ভবিষ্যতের ওপর প্রভাব পড়বে।’

গত মাসেই, মোদি সরকার জম্মু ও কাশ্মীরের কয়েক দশক পুরনো বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদের বিধান বাতিল করে দেয়। পাশাপাশি ওই রাজ্যকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করারও ঘোষণা দেয় কেন্দ্রীয় সরকার। বাচেলেত এ-ও বলেন যে তিনি নিয়ন্ত্রণ রেখার দুই দিকে মানবাধিকার পরিস্থিতির নিয়মিত খোঁজখবর রাখছেন। সূত্র : এনডিটিভি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা